‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারে রাইট অনুমোদন না দেওয়ার দাবি

0
41
dse_press
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন আব্দুল হান্নান

পুঁজিবাজারে কারসাজি মুক্ত রাখতে ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারে বিএসইসিকে রাইট শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন না দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। একই সাথে পুঁজিবাজারে বিশেষ স্কীমের আওতায় ৫০ শতাংশ সুদে ঋণ মওকুফের দাবি করেন তারা।

রোববার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার সম্মিলিত জাতীয় ঐক্যের নেতারা এ দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল হান্নান লাবলু।

সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল হান্নান লাবলু বলেন, এই ঋণে সুদের হার না কমানোতে চক্রবৃদ্ধি হারে সুদ বাড়ছে। তাই ২০১১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ঋণ মওকুফ করতে হবে।

সম্প্রতি ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারে রাইট ইস্যুর অনুমোদন দিয়েছে বিএসইসি। এতে করে কারসাজি চক্রকে সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। তাই পুঁজিবাজারের স্বার্থে রাইট অনুমোদনের সময় কোম্পানির মৌলভিত্তি যাচাই করার দাবি জানায় সংগঠনটি।

এছাড়া পুঁজিবাজারে আইপিও অনুমোদনের সময় কোম্পানির পিই রেশিও যেন ১৫ এর বেশি না হয় এবং অনুমোদনের আগে তিনটি অডিট ফার্মের মাধ্যমে কোম্পানির সত্যতা যাচাই করা সহ ১১ দফা দাবি জানানো হয়।

সংগঠনটির ১১ দফা দাবিতে পুঁজিবাজারের সচ্ছতা নিশ্চত করতে দ্রুত ফিন্যান্সশিয়াল রিপোটিং অ্যাক্ট পাশ করা, মিউচ্যুয়াল ফান্ডগুলোর সঠিক বিনিয়োগ, পুঁজিবাজারে সংকট নিরসনে ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়ানো, তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোকে সঠিক তথ্য দিয়ে আর্থিক প্রতিবেদন তৈরী করা, এজিএমে ভাড়াটিয়া গুন্ডা রাখা বন্ধ এবং ঢাকার মধ্যে এজিএম করার আহ্বান রয়েছে।

এদিকে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ নিশ্চিত করতে বাইরের দেশের মত বিনিয়োগ নিরাপত্তা আইন নিশ্চিত করা এবং ইস্যুয়ার কোম্পানির মাধ্যমে দুর্বল কোম্পানি তালিকাভুক্ত না করার দাবি জানায় সংগঠনটি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ নাঈম, সহ-সভাপতি মো. জহিরুল আলম, সাহাদৎ হোসেন ও আতিক ইফতেখার।

অর্থসূচক/জিইউ/এসএ