হরেক রকমের পায়েস

0
232
pasta-payesh-
পাস্তা পায়েস- ফাইল ছবি
payes rice
পায়েস- ফাইল ছবি

যারা মিষ্টি খেতে পছন্দ করে, পায়েস নামটি শুনলেই যে তাদের জিভে জ্বল আসবে এটাই স্বাভাবিক। আর এই পায়েস যদি নানা উপাদানে তৈরি হয় তাহলে তো কোনো কথায় নেই। যে কোন নাস্তা কিংবা মেহমানদারিতেও কিন্তু পায়েসের জুড়ি মেলা ভার।

তাই অর্থসূচকের পক্ষ থেকে আজ থাকছে হরেক রকম পায়েসের রেসিপি।

পায়েস

উপকরণ:

দুধ, সরু চাল, দুধ, দারচিনি, এলাচ, তেজপাতা, চিনি।

প্রণালি:

দুধ ঘন করে জ্বাল দিয়ে নিতে হবে। এক লিটার দুধের মধ্যে ১০০ গ্রাম গোবিন্দভোগ চাল দিলে ভালো হয়। চালটা ধুয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে পানিতে ভিজিয়ে। তারপর দুধ জ্বাল দিতে হবে। দুধ যখন ফুটতে থাকে, তখন চাল দুধের মধ্যে দিয়ে দিতে হয়। চাল অর্ধেক সেদ্ধ হয়ে এলে তারপর চিনি মেশাতে হবে। চিনি মেশানোর পর দুধ ঘন হয়ে চাল পুরো সেদ্ধ হয়ে এলে চুলায় থাকা অবস্থায় এর মধ্যে দারচিনি, এলাচ ও তেজপাতা দিতে হবে। যখন দুধ ঘন হয়ে আসবে, চাল ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে যাবে, পরিমাণমতো চিনি দেওয়া হলে তারপর নামিয়ে নিতে হবে। নামানোর পর ঠান্ডা করে পাত্রে রেখে ওপরে কিছু কিশমিশ দিতে হবে। এরপর মজাদার পায়েস পরিবেশন করুন।

gurer payes
গুড়ের পায়েস- ফাইল ছবি

গুড়ের পায়েস

উপকরণ:
পোলাওয়ের চাল আধা কাপ (ভেজানো), দুধ এক লিটার, খেজুরের গুড় ৪০০ গ্রাম, নারকেল কোরা ১ কাপ, তেজপাতা ২টি, দারচিনি ২ টুকরো, কিশমিশ ১ টেবিল-চামচ, বাদাম কুচি ১ টেবিল-চামচ, লবণ খুব সামান্য, পানি পরিমাণমতো।

প্রণালি:
দুধ ফুটিয়ে এক লিটার থেকে ঘন করে আধা লিটার করতে হবে। গুড় এক কাপ পানি দিয়ে ফুটিয়ে ছেঁকে নিতে হবে। চাল ধুয়ে তিন কাপ পানি দিয়ে তাতে তেজপাতা, দারচিনি, লবণ দিয়ে মৃদু আঁচে ভালো করে সেদ্ধ করে নিতে হবে। চাল সেদ্ধ হয়ে ঘন হলে তাতে গুড়, নারকেল ও ঘন দুধ দিয়ে নাড়তে হবে। কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে ঘন হলে নামিয়ে ঠান্ডা করে বাদাম ও কিশমিশ দিয়ে পরিবেশন করুন গুড়ের পায়েস।

payes-badakopi
বাঁধাকপির পায়েস- ফাইল ছবি

বাঁধাকপির পায়েস

উপকরণ:

বড় বাঁধাকপি ১টি, দুধ ২ কেজি, গুঁড়া দুধ ২ কাপ, খেজুরের গুড় আধা কেজি, চিনি ১ কাপ, চালের গুঁড়া ১ কাপ, ছোট এলাচ ৪টি, দারচিনি ২ টুকরা, পেস্তাবাদাম, কিশমিশ, গোলাপজল।

প্রণালি:

বাঁধাকপির ভেতরের সাদা অংশ কুচি কুচি করে কেটে নিন। এগুলো একটি পাত্রে অল্প সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে রাখুন। এবার একটি পাত্রে দুধ, চালের গুঁড়া, এলাচ, দারচিনি, পেস্তাবাদাম, পানি ঝরানো কপি দিয়ে অল্প আঁচে নাড়ুন। আলাদা একটি পাত্রে গুড় অল্প পানি দিয়ে আঁচে রাখুন। পায়েস আঠালো হয়ে এলে নামানোর আগে গুড়ের পানি (রস) মিশিয়ে দিন। দুধ না ফাটার জন্য এই ব্যবস্থা। চুলা থেকে নামিয়ে কিশমিশ, পেস্তাবাদাম দিয়ে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন।

pasta-payesh-
পাস্তা পায়েস- ফাইল ছবি

পাস্তা পায়েস

উপকরণ:

দুধ ১ লিটার, পানি ১ কাপ, পাস্তা ২ কাপ, ঘন নারকেলের দুধ ১ কাপ, গুড় আধা কাপ (কুচি করা), চিনি ১ টেবিল-চামচ, মাওয়া আধা কাপ।

প্রণালি:

দুধ ও পানি জ্বাল দিয়ে নিতে হবে। দুধ ফুটে গেলে তাতে নারকেলের দুধ দিয়ে পাস্তা সেদ্ধ করে নিতে হবে। এতে ১ টেবিল-চামচ চিনি দিয়ে জ্বাল করে গুড় মেশাতে হবে। নেড়ে নেড়ে ঘন হয়ে এলে মাওয়া দিয়ে নামাতে হবে। সাজিয়ে পরিবেশন।

টিপস

দুধে গুড় মেশাতে গিয়ে অনেক সময় দুধ ফেটে যায়। তাই গুড় মেশানোর আগে অল্প চিনি দিয়ে জ্বাল করে নিয়ে গুড় মেশাতে হবে বা চুলা থেকে নামিয়ে গুড় মেশাতে হবে।

fulcopi-payesh-
গাজর- ফুলকপির পায়েস- ফাইল ছবি

গাজর-ফুলকপির পায়েস

উপকরণ:

গাজর আধা কেজি, পোলাওয়ের চাল আধা কাপ, দুধ ২ লিটার, কনডেন্সড মিল্ক ১ টিন, দারচিনি ৬ টুকরা, এলাচ ৪টি, ফুলকপি আধা কাপ, চিনি আধা কাপ, গোলাপ পানি ১ টেবিল-চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ, কিশমিশ ২ টেবিল-চামচ, পেস্তাবাদাম কুচি ৪ টেবিল-চামচ, মাওয়া গুঁড়া ২ টেবিল-চামচ।

প্রণালি:

গাজর সবজি কুরুনিতে ঝুরি করে নিতে হবে। জাফরান গোলাপ পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। পোলাওয়ের চাল ধুয়ে পানিতে ভিজিয়ে রেখে কিছুক্ষণ পর পানি ঝরিয়ে কচলে নিয়ে চাল আধা ভাঙা করতে হবে। দুধ ও চাল একসঙ্গে চুলায় দিতে হবে। ফুটে উঠলে গাজর ও ফুলকপি দিতে হবে। এরপর এলাচ, দারচিনি দিতে হবে। চাল ও গাজর সেদ্ধ হয়ে পায়েস ঘন হয়ে এলে কনডেন্সড মিল্ক দিতে হবে। এরপর গোলাপ পানিতে ভেজানো জাফরান দিতে হবে। কিশমিশ ও কিছু পেস্তাবাদাম কুচি দিয়ে নামাতে হবে। পরিবেশনপাত্রে গাজরের পায়েস ঢেলে পেস্তাবাদাম কুচি, মাওয়া গুঁড়া ছিটিয়ে দিয়ে ঠান্ডা করে ফ্রিজে রাখতে হবে।

লাউ ও গাজরের পায়েস

laow-gajor
লাউ- গাজরের পায়েস- ফাইল ছবি

উপকরণ :

লাউ মিহি কুচি গ্রেট করা ২ কাপ, গাজর মিহি কুচি গ্রেট করা ১ কাপ, নারিকেল কোরানো ১ কাপ, দুধ ২ লিটার, কনডেন্সড দুধ ১ কৌটা, এলাচ গুঁড়ো আধা চা চামচ, ঘি ৩ টেবিল চামচ, পেস্তা বাদাম কিসমিস সাজানোর জন্য পরিমাণমত।

প্রণালি :

লাউ ও গাজর ফুটন্ত পানিতে আধা সেদ্ধ করে কাপড়ে চিপে শুকিয়ে নিতে হবে। ঘিয়ে লাউ ও গাজর ভূনে নিতে হবে। ২ লিটার দুধ ঘন করে নিয়ে লাউ ও গাজর নারিকেল দিয়ে ভাল করে নেড়ে নেড়ে ঘন হয়ে এলে এলাচ গুড়ো দিয়ে নামাতে হবে। পেস্তা বাদাম কিসমিস দিয়ে সাজিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করতে হবে।

এসএ/এএসএ/