সিরিয়ার শরণার্থীর সংখ্যা ৩০ লাখেরও বেশি: জাতিসংঘ

0
47
refugees-full
refugees-full
ঘর ছেড়ে পালাচ্ছে সিরিয়ার জনগণ।

সিরিয়ার চলমান গৃহযুদ্ধে ৩০ লাখেরও বেশি মানুষ শরণার্থী হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়েছেন। শরণার্থী শিবিরগুলোতে প্রতিনিয়ত বাড়ছে আশ্রয়প্রার্থীর এই সংখ্যা। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

সংস্থাটি বলেছে, বেঁচে থাকার তাগিদে সবকিছু পেছনে ফেলে শরণার্থী জীবন বেছে নিচ্ছেন সিরিয়ার লাখো মানুষ। যুদ্ধের বিভীষিকা কেড়ে নিয়েছে তাদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা। নিজ ঘরবাড়ি থেকে শরণার্থী শিবিরগুলোকেই তারা বেশি নিরাপদ মনে করছেন। এ ধরনের ঘটনা এই ‘যুগের সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয়’।

এক খবরে শুক্রবার বিবিসি জানিয়েছে, ২০১১ সালে গৃহযুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সমর্থক এবং বিরোধীরা। তিন বছর ধরে চলমান এ লড়াইতে প্রাণ গেছে সিরিয়ার প্রায় লাখ দুয়েক মানুষের। সাম্প্রতিক সময়ে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ সংগঠিত হওয়ার পর আরও ভয়াল হয়ে উঠেছে প্রাণহানির এ চিত্র।

সিরিয়ার মোট জনসংখ্যার অর্ধেকই জীবন বাঁচাতে দেশ ছেড়ে পালিয়েছে বলে তথ্য দিয়েছে শরণার্থী সংস্থা।

ইউএনএইচসিআর জানায়, সিরিয়ার প্রতি আট নাগরিকের মধ্যে একজন প্রতিবেশি দেশে আশ্রয় নিয়েছেন। দেশটিতে এখনো গৃহহীন অবস্থায় আছেন প্রায় ৬৫ লাখ মানুষ। যার মধ্যে অর্ধেকই শিশু।

বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নেওয়া সিরিয়ান শরণার্থীদের একটি তালিকাও প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

কোন দেশের আশ্রয়ে কতো শরণার্থী

লেবানন- ১১ লাখ ৭৫ হাজার ৫০৪

তুরস্ক- ৮ লাখ ৩২ হাজার ৫০৮

জর্ডান- ৬ লাখ ১৩ হাজার ২৫২

ইরাক- ২ লাখ ১৫ হাজার ৩৬৯

মিশর- ১ লাখ ৩৯ হাজার ৯০

উত্তর আফ্রিকা- ২৩ হাজার ৩৬৭