সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর লেনদেন বেড়েছে ৩১%

0
34
DSE-CSE
ডিএসই ও সিএসই’র লোগো

সপ্তাহের ব্যবধানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গড় লেনদেন বেড়েছে ৩১ দশমিক ১২ শতাংশ। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বেড়েছে ২২ দশমিক ৮২ শতাংশ। লেনদেনের পাশাপাশি সূচকও বেড়েছে উভয় বাজারে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের পুঁজিবাজার বর্তমানে পরিপক্ক আচরণ করছে। বর্তমান বাজার যেমন হঠাৎ করে বাড়ছে না। তেমনি কমার সময়ও তা হটাৎ কমছে না।

তারা বলছেন, একটি স্থিতিশীল বাজার হওয়ার পথে রয়েছে আমাদের পুঁজিবাজার। নিষ্ক্রিয় বিনিয়োগকারীরা আবার নতুন করে বাজারের প্রতি ঝুঁকছে। কোনো কোনো বিনিয়োগকারী নতুন করে বিনিয়োগ করছেন। যার ফলে বাজারের লেনদেন বাড়ছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩১ দশমিক ১২ শতাংশ বা ৮১৯ কোটি ১০ লাখ টাকার। পুরো সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩ হাজার ৪৫১ কোটি ৬ লাখ ৫১ হাজার টাকার শেয়ার। আগের সপ্তাহে তা ছিল ২ হাজার ৬৩১ কোটি ৮৯ লাখ ৬৬ হাজার টাকার শেয়ার।

এই লেনদেনের মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন ৮৫ দশমিক ০৪ শতাংশ; ‘বি’ ক্যাটাগরির লেনদেন ২ দশমিক ২৯ শতাংশ; ‘এন’ ক্যাটাগরির লেনদেন ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ৩ দশমিক ২৯ শতাংশ।

ডিএসইর প্রধান সূচক বা ডিএসইএক্স সপ্তাহের ব্যবধানে শূন্য দশমিক ৬৮ শতাংশ বা ৩০ দশমিক ৯৪ পয়েন্ট বেড়েছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৩১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৬টির, কমেছে ১৫২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির। আর লেনদেন হয়নি ৪টি কোম্পানির।

এদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসই’র প্রধান সূচক বেড়েছে দশমিক ৮২ শতাংশ বা ১১৬ পয়েন্ট। আর লেনদেন বেড়েছে ২২ দশমিক ৮২ শতাংশ বা ২৫৪ কোটি ২২ লাখ টাকা।

এ লেনদেনের মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন ৭৬ দশমিক ৯৩ শতাংশ; ‘বি’ ক্যাটাগরির লেনদেন ২ দশমিক ৯৯ শতাংশ; ‘এন’ ক্যাটাগরির লেনদেন ১৬ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে ৩ দশমিক ২২ শতাংশ।

লেনদেন হয়েছে ২৫৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৪টির, কমেছে ১১৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির।

জিইউ/এস রহমান