সতর্ক খুলনার বিনিয়োগকারীরা

0
49
SAMSUNG CAMERA PICTURES
খুলনার একটি সিকিউরিটিজ হাউজে বিনিয়োগকারীরা

পুঁজিবাজার আজ ভালো তো কাল খারাপ। যার কারণে বিনিয়োগকারীরা কি করবেন ভেবে উঠতে পারছেন না। তারা বলছেন, চলতি বছরের শুরুর দিকে পুঁজিবাজার গতি ফিরে পেলেও তা খুব বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। ফেব্রুয়ারি থেকে আবারো মন্দার শিকার হয় বাজার। যা থেমে থেমে এখনো চলছে। যে কারণে বর্তমান বাজারে আমরা সতর্কতার সাথে লেনদেন করছি।

বৃহস্পতিবার শিল্পনগরী খুলনার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের সাথে কথা বললে তারা এসব কথা জানান।

খুলনা ইনভেস্টরস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ জানান, বাজারের গতি স্বাভাবিক রাখা ও বাজারকে স্থিতিশীল করার জন্য সরকারের সুদৃষ্টি দরকার। সরকার চাইলে সব কিছু করতে পারে। এ জন্য প্রয়োজন আন্তরিকতার।

তিনি অভিযোগ করেন সরকার ও বিভিন্ন পক্ষ থেকে বাজার উন্নয়নে যেসব প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিলো সেগুলো বাস্তবায়ন না হওয়ায় বাজার পুরোপুরি স্থিতিশীল হচ্ছে না।

এসোসিয়েটেড ক্যাপিটাল সিকিউরিটিজ হাউজের খুলনা শাখা ব্যবস্থাপক ওয়েস আলী জামাল জানান, বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা ছিল একটি পূর্ণাঙ্গ ভালো বাজার। কিন্তু চলমান বাজার পরিস্থিতি তাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারায় অনেকে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নীরবতা পালন করছেন।

অভিজ্ঞ বিনিয়োগকারী আনোয়ারুল ইসলাম কাজল বলেন, বর্তমান সরকারের গেল মেয়াদে বাজারে মহাধস হয়েছে। দ্বিতীয় মেয়াদে সেই ধসের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চাই। কিন্তু বাজারের যে গতি তাতে আমাদের চাওয়া পূরণ হচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, এভাবে বাজারে বার বার সূচকের নিম্নগতি হলে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এক ধরনের হতাশা কাজ করে। ফলে তারা নতুন করে বিনিয়োগ করবেন কিনা এ নিয়ে সংশয়ে থাকেন।

বিনিয়োগকারী আফছার হোসেন জানান, বড় বিনিয়োগকারীদের বাজারে অর্থ বিনিয়োগ করা দরকার। সেই সঙ্গে বাজার স্বাভাবিক রাখতে সরকারসহ বাজার সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান এ বিনিয়োগকারী।

এদিকে বাজার বোদ্ধারা বলছেন, বাজারে দীর্ঘমেয়াদি স্থিতিশীলতার পথে স্বল্পমেয়াদি বিনিয়োগই প্রধান অন্তরায়। তারা বলেন, বর্তমান পুঁজিবাজারের অস্থিতিশীলতার পেছনে অন্যতম সমস্যা তারল্য এবং আস্থা সংকট। আর বিনিয়োগকারীদের স্বল্পমেয়াদি বিনিয়োগের প্রবণতা এ সমস্যাকে আরো ত্বরান্বিত করছে। তাই এ ব্যাপারে বিনিয়োগকারীদের আরো সচেতন হওয়া উচিত বলে মনে করেন তারা।

অর্থসূচক/এসএ/