রায়নার শতকে এগিয়ে গেল ভারত

0
33
সুরেশ রায়নার শতক

৪ বছর পর সুরেশ রায়না প্রায় ভুলতে বসা সেঞ্চুরির স্বাদ পেলেন। অর্ধশতক পেয়েছেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ও ওপেনার রোহিত শর্মা। রান পেয়েছেন অজিঙ্কা রাহানেও। টেস্ট সিরিজে বিপর্যয়ের পর কার্ডিফে কিছুটা হলেও দুঃখ ভুলেছে সফরকারীরা। সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৩০৪ রান করেছে ভারত। এরপর ইংল্যান্ডকে ১৬১ রানে অলআউট করে ম্যাচটা জিতেছে ১৩৩ রানে।

সুরেশ রায়নার শতক
সুরেশ রায়নার শতক

এই জয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল ভারত। বৃষ্টির কারণে প্রথম ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয় ।

১৯ রানেই দুই উইকেট হারানোয় শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি অতিথিদের। তবে রোহিত শর্মা ও অজিঙ্কা রাহানের ৯১ রানের জুটিতে প্রতিরোধ গড়ে ভারত। রোহিতের (৫২) ৮৭ বলের ইনিংসটি ৪টি চার ও ১টি ছক্কা সমৃদ্ধ।

অল্প সময়ের ব্যবধানে রাহানে ও রোহিতের বিদায়ে আবারও অস্বস্তিতে পড়ে ভারত। সেখান থেকে দলকে কক্ষে ফেরান অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ও সুরেশ রায়না।

ম্যাচ সেরা রায়নার (১০০) ৭৫ বলের ইনিংসটি সাজানো ১২টি চার আর ৩টি ছক্কায়। এটি এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের চতুর্থ শতক। ৫১ বলে ৬টি চারের সাহায্যে ৫২ রান করেন ধোনি।

ম্যাচের দ্বিতীয় ভারতীয় ফিল্ডার ও ইংলিশ ওপেনাররা মাঠে নেমে ঠিকঠাক দাঁড়ানোর আগেই বৃষ্টির হানা।এজন্য ইংল্যান্ড ইনিংসের শুরুটা গেল পিছিয়ে। বৃষ্টি যখন থামল, ওভার কমে গেছে তিনটি। ইংল্যান্ডের পুনর্নির্ধারিত লক্ষ্যটা হলো ২৯৫। কিন্তু উদ্বোধনী জুটিতে ৫৪ রান তোলার পরও ৩৮.১ ওভারেই অলআউট স্বাগতিকরা।

২৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ভারতের সফলতম বোলার রবিন্দ্র জাদেজা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত:

৫০ ওভারে ৩০৪/৬ (রোহিত ৫২, ধাওয়ান ১১, কোহলি ০, রাহানে ৪১, রায়না ১০০, ধোনি ৫২, জাদেজা ৯*, অশ্বিন ১০*; ওকস ৪/৫২, ট্রেডওয়েল ২/৪২)

ইংল্যান্ড:

৩৮.১ ওভারে ১৬১ (কুক ১৯, হেলস ৪০, বেল ১, রুট ৪, মর্গ্যান ২৮, বাটলার ২, স্টোকস ২৩, ওকস ২০, জর্ডান ০, ট্রেডওয়েল ১০, অ্যান্ডারসন ৯*; জাদেজা ৪/২৮, সামি ২/৩২, অশ্বিন ২/৩৮, রায়না ১/১২, ভুবনেশ্বর ১/৩০)।

ইউএম/