দিনাজপুরে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট

0
42
strick
পরিবহন ধর্মঘট- ফাইল ছবি
strick
পরিবহন ধর্মঘট- ফাইল ছবি

বাস ও টেম্পু শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ এবং ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার জেরে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে দিনাজপুর বাস মালিক সমিতি ও মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন।

আজ বৃহস্পতিবার থেকেই এ অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট পালন করছে তারা।

প্রায় ৫ ঘন্টা ধরে দিনাজপুরের সাথে বিরল-বোচাগঞ্জ-কাহারোল-ঠাকুরগাঁও জেরার পীরগঞ্জ ও রাণীশংকৈল উপজেলার রুটে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দীর্ঘদিন থেকে বালুয়াডাঙ্গা বাস শ্রমিকদের সাথে চাউলিয়াপট্রি টেম্পু ষ্ট্যান্ডের বিভিন্ন রুটে যাত্রী বহন নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো।

এরই সূত্রে বুধবার ২৭ আগষ্ট বিকাল ৪টার দিকে সেতাবগঞ্জ থেকে গিতাঞ্জলী পরিবহন নামের একটি যাএীবাহী বাস দিনাজপুরে আসার সময় বিরল উপজেলার মঙ্গলপুর নামক স্থানে টেম্পু শ্রমিকরা গতিরোধ করে ভাংচুর চালায়।

এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে মোটর শ্রমিকরাও ক্ষিপ্ত হয়ে বালুয়াডাঙ্গায় কয়েকটি টেম্পু ভাংচুর করে যান চলাচল বন্ধ রাখে। এসময় বাস ও টেম্পু শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ঘটনা ঘটে। এতে ৩ শ্রমিকসহ কমপক্ষে ১০ আহত হন। আহতদের দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

বাস চালকরা জানিয়েছে, জড়িত টেম্পু চালকদের বিচার করা না হলে তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য বাস চলাচল বন্ধ করে দিবে।

অপরদিকে টেম্পু চালকরা জানিয়েছে, বিনা কারণে তাদের একজনকে মারধোর করেছে বাস স্টাফরা। ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হলে তারাও বাস চলাচল করতে দিবে না।

দিনাজপুর বাস মালিক সমিতির সভাপতি ভবানী শংকর আগরওয়াল জানান, বিষয়টি নিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য আলোচনা করা হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার থেকে পরিবহন ধর্ম ঘটের পক্ষে বেশির ভাগ মালিক মতামত দিয়েছেন। জড়িত যারাই হোক তাদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান তিনি।

এ ব্যাপারে দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক ফজলে রাব্বী জানান, মোটর শ্রমিকের উপর হামলার প্রতিবাদে ইউনিয়নের জরুরী সিদ্ধান্তে আজ বৃহস্পতিবার থেকে জেলার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলতাফ হোসেন জানান, পরিস্থিতি বর্তমানে পুলিশের নিয়ন্ত্রণে। রাতের মধ্যেই যান চলাচল স্বাভাবিক হবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন ওসি।

এএসএ/