ঢেউ টিনে ভ্যাট কমেছে, কমতে পারে দাম

0
107
Tin
ঢেউ টিন। ফাইল ছবি

ঢেউ টিনের উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাটের ক্ষেত্রে ট্যারিফ ভ্যালু ১০ শতাংশ কমিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ফলে বাজারে ঢেও টিনের দাম কমতে পারে।

Tin
ঢেউ টিন। ফাইল ছবি

মঙ্গলবার এনবিআরের মূসক অনুবিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে কর কমানোর এই আদেশ দেওয়া হয়।

এনবিআর সূত্র জানায়, মূসক আইন ১৯৯১ (২২) ধারার ৫ এর উপ-ধারা (৭) পরিবর্তন করে সব ধরনের ঢেউ টিনের উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে স্লাবকে পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। এতে ঢেউ টিনের ৫টি স্লাবে প্রতি মেট্রিক টনে মূসকের পরিমান ১৩৫০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা পর্যন্ত কমানো হয়েছে।

ফলে সব ধরনের ঢেউ টিনের বাজার মূল্য ১০ শতাংশ হারে কমবে বলে অর্থসূচককে জানিয়েছে এনবিআরের সংশ্লিষ্ট বিভাগের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

তিনি জানান, ঢেউ টিনের ৫টি স্লাবের মধ্যে এইচ আর কয়েল থেকে সি আর কয়েলের প্রতি মেট্রিক টনের উৎপাদন ও সরবরাহে মূসক ৭৫০ টাকা কমিয়ে ৭ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। সি আর কয়েল থেকে জি পি শীটে ৬০০ টাকা কমিয়ে ছয় হাজার, সি আর কয়েল থেকে সি আই শিটে ৬৩৫ টাকা কমিয়ে ছয় হাজার ৩৭৫ টাকা, এইচ আর কয়েল থেকে জি পি শিটে এক হাজার ৩৫০ টাকা কমিয়ে ১৩ হাজার ৫০০ টাকা এবং এইচ আর কয়েল থেকে সি আই শীটে উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে মূসক এক হাজার ৩৫০ টাকা কমিয়ে ১৩ হাজার ৮৭৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ঢেউ টিন আমদানি করতে হয় না। উৎপাদন ও সরবাহের ওপর মূসক কমানোর ফলে সব ধরনের ঢেউ টিনে দাম কমে যাবে। দেশীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানে মুনাফা অর্জনের পাশাপাশি দারিদ্র জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে।

প্রসঙ্গত, এইচ আর ও সি আর কয়েল এবং জি পি ও সি আই শিট দ্বারা ঢেউ টিন তৈরি হয়। বাজারে বর্তমানে ভালো মানের ঢেউ টিন প্রতি টন বিক্রি হচ্ছে ৯০ হাজার থেকে এক লাখ ১৫ হাজার টাকায়। আর নিম্নমানের টিনের মূল্য প্রতি টনে ৩৫ হাজার টাকা মানভেদে ভিন্ন মূল্যে বিক্রি হয়। মূসকের নতুন স্লাব অনুযায়ী সব ধরনের টিনের দাম কমবে।

এমই/