১৩ পিই নিয়ে বাজারে ফার ইস্ট নিটিং

0
61
fareast kniting
ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডায়িং কারখানা এবং লোগো
fareast kniting
ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডায়িং কারখানা এবং লোগো

আজ বৃহস্পতিবার দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন শুরু হচ্ছে ফার ইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডায়িং কোম্পানির। শতভাগ রপ্তানিমুখী এ প্রতিষ্ঠানটি ১৭ টাকা প্রিমিয়ামসহ ২৭ টাকা দরে বাজারে শেয়ার ছেড়েছে। আড়াই কোটি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে সংগ্রহ করেছে ৬৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা।এর মধ্যে ২৫ কোটি টাকা যাবে পরিশোধিত মূলধনে। বাকীটা প্রিমিয়াম একাউন্টে। কোম্পানির প্রসপেক্টাসের ভিত্তিতে এ ছোট্ট প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

ফার ইস্ট নিটিং একটি তৈরি পোশাক রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি নিট কাপড় উৎপাদন, কাপড় রং করা এবং ওই কাপড় থেকে পোশাক তৈরি করে। ফার ইস্টের তৈরি করা পোশাকের মধ্যে রয়েছে জেন্টস ও লেডিস টি-শার্ট, জগিং পোশাক, পাজামা, জ্যাকেট।

কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ১৫০ কোটি টাকা। আইপিও পূর্ববর্তী পরিশোধিত মূলধন ছিল ৯১ টাকা টাকা। আইপিও’র পর মূলধন বেড়ে হয়েছে ১১৬ কোটি টাকা। শেয়ার সংখ্যা ১১ কোটি ৬০ লাখ। এর মধ্যে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে আড়াই কোটি শেয়ার।

পুঁজিবাজার থেকে সংগৃহীত অর্থের ৮০ ভাগ দিয়ে মেয়াদী ঋণ পরিশোধ করবে কোম্পানিটি। আর প্রায় ১৬ শতাংশের মতো অর্থ ব্যয় করা হবে বিএমআরই (BMRE)  কারখানার আধুনিকায়নে।

৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৫৪ পয়সা।সর্বশেষ হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই’১৩-মার্চ’১৪) ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৪ পয়সা। আইপিও পরবর্তী শেয়ার সংখ্যা বিবেচনায় নিলে ইপিএস হয় ১ টাকা ৬০ পয়সা। এটিকে বার্ষিকীকরণ করলে ইপিএস দাঁড়ায় ২ টাকা ১৩ পয়সা।

ফার ইস্ট নিটিং ২৭ টাকা দরে বাজারে শেয়ার ছেড়েছে। এ হিসেবে এর মূল্য-আয় অনুপাত (PE Ratio) হয় ১২ দশমিক ৬৭। বুধবার লেনদেন শেষে টেক্সটাইল সেক্টরের পিই ছিল ১১ দশমিক ৭৪। এ হিসেবে বাজারের গড় মূল্যের চেয়ে কিছুটা বেশি পিই রেশিও নিয়ে বাজারে অভিষেক হচ্ছে ফার ইস্ট নিটিংয়ের।