শাহজিবাজারের স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হচ্ছে কাল

0
89
Shahjibajar_Power
শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড (এসপিসিএল) লোগো
Shahjibajar_Power
শাহজিবাজার পাওয়ার

শাহজিবাজার পাওয়ারের শেয়ার লেনদেনে আরোপিত স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামীকাল। নিয়ন্ত্রক সংস্থা দ্বিতীয় মেয়াদে স্থগিত না করলে রোববার কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন শুরু হবে। তবে বিধি অনুসারে, তদন্তের প্রয়োজনে চাইলে আরও ১৪ কার্যদিবস লেনদনে বন্ধ রাখতে পারবে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।

ডিএসই দ্বিতীয় দফায় লেনদেনে স্থগিতাদেশ আরোপ করবে কিনা সে বিষয়ে কোনো আভাস পাওয়া যায়নি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেছেন, শাহজিবাজার পাওয়ারের লেনদেন স্থগিত করা হয়েছিল বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) মৌখিক নির্দেশে। তাই কালই ওই স্থগিতাদেশ উঠে যাবে, নাকি দ্বিতীয় মেয়াদে তা বাড়ানো হবে সে বিষয়টি নির্ভর করবে বিএসইসির চাওয়ার উপর।

শাহজিবাজার পাওয়ার শেয়ার দর অস্বাভাবিকহারে বাড়ার কারণে চলতি মাসের ১১ তারিখ কোম্পানিটির লেনদেন বন্ধ করে দেয় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) কর্তৃপক্ষ।বিনিয়োগকারীদের বৃহত্তর স্বার্থের কথা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানাননো হয়। এ হিসেবে বুধবার ১৩ কার্যদিবস শেষ হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিকিউরিটিজ আইন অনুযায়ী কোনো কোম্পানির শেয়ারের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধি পায়, তাহলে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কথা বিবেচনা করে ১৪ দিন করে দুই মেয়াদে সর্বোচ্চ ২৮ কার্যদিবস লেনদেন বন্ধ রাখা যায়।

এদিকে, অস্বাভাবিকভাবে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ৪ আগস্ট কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি ২৫ আগস্ট তাদের প্রতিবেদন জমা দেয়।

উল্লেখ, গত মাসে তালিকাভুক্ত হওয়ার পর থেকেই এসপিসিএলের শেয়ারের দর অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে। এক মাসেরও কম সময়ে শেয়ারটির দাম ৩৫ টাকা থেকে ৯০ টাকায় ওঠে।

এ দিকে শাহজিবাজারের শেয়ার লেনদেন স্থগিত করায় ক্ষুব্ধ অনেক বিনিয়োগকারী। তাদের অভিযোগ, লেনদেন স্থগিতের ক্ষেত্রে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি। সাধারণত কোনো কোম্পানির শেয়ারের দর বৃদ্ধি অস্বাভাবিক মনে হলে স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ কোম্পানির কাছে জানতে চায় মূল্য বৃদ্ধির পেছনে কোনো সংবেদনশীল তথ্য আছে কিনা। কোনো মূল্যসংবেদনশীল তথ্য না থাকার কথা জানানোর পরও মূল্যবৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে স্টক এক্সচেঞ্জ অনেক ক্ষেত্রে ওই শেয়ারের লেনদেন স্থগিত করে। কিন্তু শাহজিবাজারের ক্ষেত্রে লেনদেন স্থগিতের আগে কোম্পানির কাছে কোনো তথ্য জানতে চায়নি ডিএসই। তাই লেনদেন স্থগিতের বিষয়টি ত্রুটিপূর্ণ বলে অভিযোগ বিনিয়োগকারীদের।

অবশ্য লেনদেন স্থগিতের দিনেই কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য আছে কিনা তা জানতে চেয়ে কোম্পানিকে চিঠি দেয় ডিএসই। এর জবাবে কোম্পানিটি জানায়,  তাদের কাছে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই।

জিইউ