পাকিস্তানে মন্দির ভাঙার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ

0
51
Pak temple
পাকিস্তানে মন্দির ভাঙার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ হিন্দুদের- ফাইল ছবি
Pak temple
পাকিস্তানে মন্দির ভাঙার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ হিন্দুদের- ফাইল ছবি

পাকিস্তানের সেনা শহর রাওয়ালপিন্ডিতে বহুদিনের পুরানো ঐতিহ্যবাহী একটি মন্দির ভাঙার নোটিশকে ঘিরে ক্ষোভ ছড়িয়েছে সংখ্যালঘু হিন্দুদের মধ্যে।

মঙ্গলবার ভারতের এক বার্তা সংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

গত ১২ অগাস্ট সেনাবাহিনীর ব্যারাক তৈরির জন্য মহাঋষি ওয়ালমেক স্বামী জি মন্দির ও এর সংলগ্ন একটি হিন্দু সমাধিক্ষেত্র ভাঙা পড়বে বলে হিন্দু সম্প্রদায়কে জানানো হয়েছে।

১৯৩৫ সালের তৈরি চাকালালার গ্রেসি লাইনস এলাকায় প্রাক-স্বাধীনতা আমলের মন্দিরটি বালাকনাশ মন্দির নামেই বেশি পরিচিত। হিন্দু সমাধিক্ষেত্র ছাড়াও তার পাশেই আছে ৫৩টি সিঙ্গল রুমের একটি বাড়ি। সেনাছাউনির জায়গা দিতে সবই ভাঙা পড়বে।

এর বিরুদ্ধে স্থানীয় আদালতে পিটিশন  পেশ করে হিন্দুরা। আপাতত মন্দির ও সমাধিক্ষেত্র ভাঙার ওপর স্থগিতাদেশ জারি করেছে আদালত।

তবে সাময়িক মন্দির ভাঙা বন্ধ থাকলেও হিন্দুদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। কেননা রাওয়ালপিন্ডির ক্ষুদ্র হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুষ্ঠান সম্পন্ন করার এটিই একমাত্র জায়গা।

অশোক চাঁদ নামে এক সংখ্যালঘু জানান, স্বাধীনতার আগেই আইন মেনে তৈরি হয়েছিল ওই মন্দির। এখন তা ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার কোনো যুক্তি নেই।

তিনি বলেন, আমরা তো ভারতে যেতে চাইনি। জিন্নার পাকিস্তানকেই নিজেদের ঘর বলে মেনেছি। আর আজ কিনা আমাদের ভিটেমাটি ছাড়া করা হচ্ছে!

জানা গেছে, মন্দির সংলগ্ন বাড়ির বাসিন্দাদের জন্য বিকল্প জায়গার কথা ভাবা হচ্ছে। তবে নতুন মন্দির গড়ে দেওয়া হবে কিনা তা স্পষ্ট নয়।

এএসএ/