সন্দ্বীপে সিমেন্ট ক্লিংকারবোঝাই জাহাজ ডুবে গেছে

0
28
ship-down in ctg port
ফাইল ছবি
ship-down in ctg port
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙর থেকে নারায়ণগঞ্জে যাওয়ার পথে সন্দ্বীপের অদূরে চরে আটকা পড়ে দুভাগ হয়ে ডুবে যাচ্ছে পণ্যভর্তি একটি লাইটার জাহাজ। জাহাজটিতে হোলসিম গ্রুপের দুই হাজার ৭০০ টন ক্লিংকার রয়েছে।

সোমবার সকালে দুর্ঘটনায় পড়ার পর বিকেলে প্রায় অর্ধেক অংশ ডুবে যায়।

লাইটার জাহাজ পরিচালনাকারী সংস্থা ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট সেলের নির্বাহী পরিচালক মাহবুব রশীদ জানান, জাহাজটিতে কোন যান্ত্রিকত্রুটি ছিল না। মাত্র ২ বছর আগে জাহাজটি চালু করা হয়। এটিতে প্রায় ৩ হাজার টন পণ্য ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন ছিল বলে জানান তিনি।

জানা গেছে, গত শনিবার এমভি রামি সামি-১ জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে একটি বড় জাহাজ থেকে হোলসিম সিমেন্ট কারখানার আমদানি করা ২ হাজার ৭০০ টন ক্লিংকার নিয়ে নারায়াণগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। জাহাজটি সন্দ্বীপের অদূরে চর নুরুল ইসলাম-১ এর কাছে যাওয়ার পর আটকা পড়ে পড়ে।

দুর্ঘটনায় পড়ার পর এমভি নোভাকে সেখানে পাঠানো হয়। বিকেলের দিকে ডুবতে থাকা জাহাজ এমভি রামি-সামি-১ থেকে ১৬ জন নাবিককে এমভি নোভা নামের অপর একটি জাহাজে তোলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এএস/সাকি