চবিতে ছাত্রলীগ-শিবির সংঘর্ষ

0
25
Chittagong-University
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গেট
Chittagong-University
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গেট

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষে ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। এসময় উভয় পক্ষ ২০ রাউন্ড গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রথমে ১শ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পুলিশ। রাত ১০টার পর তারা হল তল্লাশি শুরু করে।

পরিস্থিতির অবনতি ঠেকাতে বাড়তি পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ক্যাম্পাসে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রশিবির নিয়ন্ত্রিত সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার সকাল  ১১টার দিকে ক্যাম্পাসের শহীদ মিনার এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল আবাসিক হলের সিট বাতিল করে নতুনভাবে বরাদ্দ দেওয়ার দাবিতে  মানববন্ধন করে ছাত্রলীগ। এসময় মানববন্ধনের ছবি তোলায় শওকত হোসেন নামে কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের এক শিবির কর্মীকে মারধর করে ছাত্রলীগ।

এদিকে বিকেলে ছাত্রলীগের কিছু কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে গেলে শিবিরের কর্মীরা ধাওয়া দেয়। এ ঘটনায় পরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সোহরাওয়ার্দী হলের  সামনে অবস্থান নেয়। ছাত্রলীগ হলের বাইর থেকে এবং শিবির হলের ভেতর থেকে গুলি ও ককটেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এ ঘটনায় শিবিরের দুজন এবং ছাত্রলীগের ৩ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাটহাজারী থানার ওসি  আবুল কাশেম।

আবুল কাশেম জানান, সন্ধ্যার পর থেকে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রায় ১শ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। পরিস্থিতি এখন  পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। উভয় পক্ষের গুলাগুলিতে অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে বলে হয়েছে বলে জানান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর সিরাজ-উদ-দৌলা বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। পুলিশের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন বলে তিনি জানান।

 এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় পরস্পরকে দায়ী করছে ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবির ।