আইএসের হাতে ‘টাকার খনি’

0
48
Iraq_ISIS
ইরাকে টহলরত আইএসআইএসের নারী সদস্যরা
Iraq_ISIS
ইরাকে টহলরত আইএসআইএসের সদস্যরা

ইরাক এবং সিরিয়ায় দখলকৃত অঞ্চল থেকে বিপুল পরিমাণ জ্বালানি তেল উৎপাদন করে কালোবাজারে বিক্রি করছে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) জঙ্গিরা।

তেল বাজার বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে এক খবরে গালফ নিউজ জানিয়েছে, এই জঙ্গিরা তেল বিক্রি করে প্রতিদিন প্রায় ২০ লাখ মার্কিন ডলার আয় করছে।

জানা গেছে, এসব তেল আন্তর্জাতিক বাজারের তুলনায় অর্ধেক দামে বিক্রি হচ্ছে। চোরাচালানির মাধ্যমে এ তেল জর্দান, ইরান, তুরস্ক, সিরিয়া এবং ইরাকের স্থানীয় বাজারে বিক্রি হচ্ছে। এ তেলের বেশিরভাগই অপরিশোধিত এবং স্থানীয়ভাবেই এসব স্থানীয়ভাবে পরিশোধন করা হচ্ছে।

আইএস জঙ্গিদের তেল বিক্রি সম্পর্কে দোহা সেন্টারের জ্বালানি বিশেষজ্ঞ লুয়ে আল খাত্তাব জানান, জঙ্গিরা ইরাক এবং সিরিয়ার মধ্যবর্তী অঞ্চলকে চোরাচালানির রুট হিসেবে ব্যবহার করছে।

তিনি জানান, এ এলাকার যেসব গ্যাং একসময় চোরাচালানে যুক্ত ছিল, এখন তারা তেল বিক্রি করছে।

খাত্তাবের মতে, আইএস জঙ্গিরা প্রতিদিন ৩০ হাজার ব্যারেল তেল উৎপাদন করছে।

তিনি জানান, জঙ্গিরা তেল বিক্রির মাধ্যমে বছরে ৭০ কোটি আয় করতে পারে।

খাত্তাব আরও জানান, পরিমাণ কম হলেও জঙ্গিদের তেল বিক্রির ঘটনা উদ্বেগজনক। তেল বিক্রি থেকে আয়কৃত আইএসের কাজে ব্যবহার শঙ্কা থাকলেও তুরস্কের মতো দেশ এ কার্যক্রম দেখেও না দেখার ভান করে আছে।

দুবাই ভিত্তিক ইনস্টিটিউট ফর নিয়ার ইস্ট এবং গালফ মিলিটারি অ্যানালাইসিসের বিশেষজ্ঞ থিওডোর কারাসিক জানান, এ তেল তুরস্ক এবং সাইপ্রাস হয়ে বুলগেরিয়া-ইউক্রেনেও পৌঁছে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সুন্নি যোদ্ধা ও উপজাতীয়দের নিয়ে গঠিত আইএসআইএস গত জুনেইরাকের নেনেয়াভাহ, তিকরিত ও কিরকুক দখল করে নেয়। এই সংগঠনটি গত ডিসেম্বর থেকে দেশটির আনবার প্রদেশ দখল করে রেখেছে। সংগঠনটি ইরাক ভিত্তিক হলেও এর কার্যক্রম সিরিয়া পর্যন্ত বিস্তৃত। চলতি বছরের জুনের শেষের দিকে ইরাক ও সিরিয়ার দখলকৃত অঞ্চল নিয়ে সংগঠনটি ‘খিলাফত রাষ্ট্র’ ইসলামিক স্টেট প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেয়।

আইএস বর্তমানে ইরাকে সাতটি তেলক্ষেত্র এবং দুটি পরিশোধানাগার দখল করে রেখেছে। এছাড়াও সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত ৬০ শতাংশ তেলক্ষেত্র এই জঙ্গিদের দখলে রয়েছে।

এদিকে জুনের পর থেকে বিশ্ববাজারে তেলের দাম ব্যারেল প্রতি ১০ মার্কিন ডলার কমে গেছে। দামের অবনমনের সাথে আইএসের তেল বিক্রির কোনো সম্পর্ক আছে নিশ্চিত করতে পারেননি বাজার বিশেষজ্ঞরা।