শীতে ভালো থাকুক বাগানের গাছেরা

0
190

pinkiবাগান করার শখ কম বা বেশী সবারই রয়েছে। কেউ ফল, কেউ শাকসবজি আবার কেউ ফুলের বাগান করতে পছন্দ করে থাকেন। ফুলের বাগান মনকে সতেজ এবং সজীব রাখে তেমনি বাড়ির সৌন্দর্য্য বর্ধনে প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে। বাগান করার জন্য প্রয়োজন সঠিক পরিচর্যা এবং অদম্য ধৈর্য্য, বিশেষকরে শীতকালে একটু অতিরিক্ত পরিচর্যার প্রয়োজন হয়। শীতকালে শুধু ঠান্ডাই ফুলের গাছের ক্ষতি করে না বরং শীতকালের বায়ু প্রবাহ নাজুক প্রকৃতির ফুলের গাছের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

এই সকল নাজুক এবং বিলাসবহুল ফুলের গাছকে শীতের বৈরী আবহাওয়া হতে রক্ষার কিছু প্রয়াস:

র‌্যাপিং: শীতের প্রকোপ হতে ফুলের গাছকে রক্ষা করার জন্য র‌্যাপিং বা মোড়ানো খুবই জরুরী। র‌্যাপিং বা মোড়াক ফুলের গাছকে সরাসরি শীতের আক্রমন হতে এবং বাতাস হতে রক্ষা করে। র‌্যাপিং বা মোড়াক করার সময় খেয়াল রাখতে হবে যাতে ফুলের পাপড়ির কোন ক্ষতি না হয়। পলিথিন দিয়ে র‌্যাপিং বা মোড়াক করা যায়। এছাড়া পুরোনো কম্বল, পুরোনো কাপড় দিয়েও র‌্যাপিং বা মোড়ানো যাবে। সূর্যালোক পাবার জন্য ভারী র‌্যাপিং বা মোড়াক মাঝে মাঝে খুলে দিতে হবে।

টবের মধ্যে বপন: এই পদ্ধতিতে গাছ বপন করলে যেকোন সময় গাছকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেয়া যায় খুব সহজেই। শীতের প্রকোপ বেশী হলে গাছকে ঘরের মধ্যে রাখা যেতে পারে, এতে ঘরের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পায়। এমনকি অতিরিক্ত সূর্যালোক এবং বাতাস থেকে গাছকে রক্ষা করা যায়।

সঠিক সময়ে পরিকল্পনা করা: শীতের শুরুর আগেই নাজুক এবং বিলাসবহুল ফুলের গাছকে রক্ষা করার পরিকল্পনা করতে হবে।

অস্থায়ী গ্রীনহাউজ: নাজুক এবং বিলাসবহুল ফুলের গাছকে শীতের প্রকোপ হতে রক্ষা করার জন্য এটি খুব চমৎকার ধারনা। খুব সহজেই PBC পাইপ এবং visqueen দ্বারা সাধারন hoop গ্রীনহাউজ তৈরী করা যায়।

শীতের আগে সার প্রয়োগ: শীতের শুরুর প্রায় ২ মাস আগেই সার প্রয়োগ করতে হবে। অতিরিক্ত প্রুনিং এবং ট্রেনিং করা যাবে না।

কার্ডবোর্ডের ব্যবহার: শীতে বাতাসের তীব্রতা থেকে নাজুক এবং বিলাসবহুল ফুলের গাছকে রক্ষা করার জন্য কার্ডবোর্ডের ব্যবহার করা যেতে পারে। এর মাঝে পাতা অথবা কাগজ ব্যবহার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়।