পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য ৩০% কমিয়েছে ভারত

0
87
Onion
আড়তে পেঁয়াজ বাছাই করছে এক কিশোরী
indian onion crisis
ভারতের চন্ডিগড়ে পেঁয়াজ বাছাই করছেন এক কর্মী। (ছবি-রয়টার্স)

ভারতে পেঁয়াজের দাম আবারও স্থিতিশীল হচ্ছে। দেশটির মন্ত্রিসভা বুধবার পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য ৩০ শতাংশ কমিয়ে এনেছে।

অভ্যন্তরীণ বাজারে পেঁয়াজ সরবরাহ বাড়াতে ও দাম বৃদ্ধি ঠেকাতে গত দু’মাসে পেঁয়াজ রপ্তানিতে মূল্য বাড়িয়েছিল দেশটি।

বৃহস্পতিবার বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, ভারতের টেলিকম ও আইনমন্ত্রী রাভি শংকর প্রসাদ সাংবাদিকদের বলেছেন, ৩৫০ মার্কিন ডলারে এখন থেকে প্রতিটন পেঁয়াজ রপ্তানি করা যাবে। এর আগে ন্যূনতম রপ্তানি মূল্য ছিল ৫০০ মার্কিন ডলার।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, দেশীয় উৎপাদন কমে যাওয়ার ভয়ে জুন মাসের মাঝামাঝিতে পেয়াজের সর্বনিম্ম রপ্তানি মূল্য বাড়িয়ে করা হয় প্রতি টনে ১৫০ থেকে ৩০০ মার্কিন ডলার। পরবর্তীতে তা আবারও নেমে আসে।

পেঁয়াজ রপ্তানিকে নিরুৎসাহিত করতে জুলাই মাসে তা বেড়ে ৫০০ ডলারে ওঠে। বৃহস্পতিবার তা আবার কমিয়ে প্রতি টন পেঁয়াজের রপ্তানি মূল্য করা হয় ৩৫০ মার্কিন ডলারে।

প্রসঙ্গত, রান্না-বান্নার কাজে ভারত প্রতিছর ১৫ মিলিয়ন টন পেঁয়াজ খরচ করে।  অন্যদিকে দক্ষিণ এশিয়ার এ দেশটি প্রতিবছর ১৫ লাখ টন পেঁয়াজ রপ্তানি করে থাকে। আর এর একটি বড় অংশ আসে তার প্রতিবেশী বাংলাদেশে। সারাবছর পেঁয়াজ আমদানি হলেও রমজানের আগে তা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। কারণ ইফতার সংস্কৃতির কারণে তখন দেশে পেঁয়াজের চাহিদা তুঙ্গে উঠে।

গত ডিসেম্বরেও পেঁয়াজের ন্যূনতম রপ্তানি মূল্য ৫৭ শতাংশ কমিয়ে প্রতি টন ১৫০ ডলার নির্ধারণ করেছিল দেশটি।