২১ আগস্ট হামলার পরিকল্পনা তারেকের কার্যালয়ে: জয়

0
58
joy_Baps২১ আগস্ট হামলার পরিকল্পনা তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপরসন খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানের কার্যালয়ে খালেদার রাজনৈতিক সচিবের উপস্থিতিতে হয়েছিল বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়।

শুক্রবার নিজের ফেসবুক পেইজে এক স্ট্যাটাসে এই দাবি করেছেন তিনি।

জয় বলেছেন, বাঙালী জাতি এবং আমার পরিবারের ইতিহাসে আগস্ট একটি অন্ধকার মাস। ১৫ আগস্ট তারা হত্যা করেছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ১৭ আগস্ট তারা দেশের ৫০০ স্থানে একই সময়ে বোমা হামলার মাধ্যমে পুরো জাতির উপর আক্রমণ চালিয়েছে।

তিনি বলেন, ২১ আগস্ট তারা আমার মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছে। ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে তারা আমাদের ২৩ জন কর্মীকে হত্যা করেছে, আহত করেছে ৪০০ এর বেশী জনকে।

সব কটা হামলার সাথে জড়িত খুনীদেরকে বিএনপি রক্ষা করার চেষ্টা করেছে- একথা উল্লেখ করে জয় বলেন, তারা ১৫ আগস্টের খুনীদেরকে ইনডেমনিটির মাধ্যমে ছেড়ে দিয়ে এবং বিদেশে চাকরী দেয়ার মাধ্যমে পুরষ্কৃত করেছে।

গত মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার সময় ১৭ আগস্টে যারা দেশজুড়ে মুহুর্মুহু বোমা হামলা চালিয়েছে বিএনপি তাদেরকেও রক্ষা করেছে- এই অভিযোগ করে তিনি বলেন, ২১ আগস্টের হামলার পরিকল্পনাও হয়েছিলো খালেদা জিয়ার পুত্র তারেক রহমানের কার্যালয়ে খালেদার রাজনৈতিক সচিব এর উপস্থিতিতে।

প্রধানমন্ত্রীপুত্র বলেন, ইতিহাসের বিভিন্ন সময়ে এই আগস্টে যারা প্রাণ হারিয়েছেন আসুন তাদেরকে স্মরণ করি। তাদের অনেকেই ছিলেন আমার পরিবারের সদস্য।

তিনি বলেন, আমি বার বারই বলে এসেছি, বিএনপি হলো সন্ত্রাসীদের দল। তাদের বিচারের সম্মুখীন করা প্রয়োজন।

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালের ২১ অগাস্ট রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে শেখ হাসিনার সমাবেশে ওই গ্রেনেড হামলায় নিহত হন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী আইভি রহমানও। গ্রেনেড হামলার মামলায় খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান, তৎকালীন মন্ত্রী জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মো. মুজাহিদ এবং প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরও রয়েছেন।