মিশুকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

0
35
Mishu2
গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি ও তোবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়ক মোশরেফা মিশুকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বাড্ডা থেকে আটকের সময় ছবিটি তোলেছেন মহুবার রহমান।
Mishu2
গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি ও তোবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়ক  মোশরেফা মিশুকে আটক করেছে পুলিশ। গত ৭ আগস্ট বাড্ডা থেকে তাকে আটক করে। ছবি- অর্থসূচক।

তোবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক মোশরেফা মিশুকে ছেড়ে দিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বুধবার বিকেলে আটকের পর সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ডিবি কার্যালয় থেকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ডিবির উপকমিশনার শেখ নাজমুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে সন্ধ্যা পৌনে ৭ টায় মোশরেফা মিশুকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তাৎক্ষনিক এক বিক্ষোভ সমাবেশে তোবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির নেত্রী ও গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের যুগ্ম সম্পাদক জলি তালুকদার এ ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি বলেন, আগামী ২ ঘণ্টার মধ্যে মোশরেফা মিশুকে মুক্তি না দিলে সারাদেশে সকল গার্মেন্টসে আবারো ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হবে।

বুধবার দুপুরে তোবা গ্রুপের বন্ধ কারখানা খুলে দেওয়ার দাবিতে মিশুর নেতৃত্বে মিছিল বের করে প্রতিষ্ঠানটির শ্রমিকরা। মিছিলটি বাড্ডা লিংক রোডে পৌঁছলে পুলিশ তাতে বাঁধা দেয়। এসময় পুলিশ  মিছিল থেকে মিশুকে আটক করে।

সমাবেশে পরবর্তী কর্মসূচী প্রসঙ্গে জলি তালুকদার বলেন, আগামীকাল বিকেল ৪টায় প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করা হবে এবং ২২ আগস্ট সকাল ১০টার দিকে গার্মেন্টস শ্রমিক সমাবেশ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, তোবা গার্মেন্টসের মালিক খুনি দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার না করে আমাদের নেত্রী মোশরেফা মিশুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার ও হামলা করে আমাদের আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না।

এ সময় অবিলম্বে তোবা গার্মেন্টস খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, গার্মেন্টস খুলে দেওয়া না হলে শ্রমিকদের সকল আইনগত পাওনা বুঝিয়ে দিন।

এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের অর্থ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, গাজীপুর প্রতিনিধি সফিউল গাজী, শ্রমিক নেত্রী তাসলিমা আক্তার লিমাসহ তোবা গ্রুপের শ্রমিকরা।

এমআই/