হাজিরা শেষে কারাগারে র‍্যাব কর্মকর্তাসহ ১৫ জন

0
73
Tarek-Arif
সাবেক অধিনায়ক লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মাহমুদ ও মেজর আরিফ হোসেন। ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের ৭ খুনের ঘটনায় হাজিরা শেষে র‌্যাবের সাবেক ৩ কর্মকর্তাসহ ১৫ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার বেলা ১১টার দিকে নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম কে.এম. মহিউদ্দিনের আদালতে হাজিরা দেন তারা।

Tarek-Arif
সাবেক অধিনায়ক লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মাহমুদ ও মেজর আরিফ হোসেন। ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. হাবিবুর রহমান জানান, গত ৩০ জুন আদালত শুনানি শেষে পরবর্তী শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন। হাজিরা শেষে র‌্যাবের সাবেক কর্মকর্তা লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর আরিফ হোসেন ও লে. কমান্ডার এম.এম. রানাসহ ১৫ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আগামী ১৩ অক্টোবর পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।

ওই দিন তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন সরকারসহ ৭ জনকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোড থেকে অপহরণ করা হয়। এর ৩ দিন পর ৩০ এপ্রিল শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ছয়জনের ও পরের দিন অপর জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় নিহত কাউন্সিলর নজরুলের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি ফতুল্লা মডেল থানায় কাউন্সিলর নূর হোসেনকে প্রধান আসামি করে মামলা করেন। জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পাল হত্যার ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় আরেকটি মামলা করেন।

র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা তারেক সাঈদ মোহাম্মাদ, আরিফ হোসেন ও এম.এম. রানা হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া র‌্যাব-১১-এর অপর ৬ সদস্য অপহরণ ও খুনের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

এমই/