পরিচালক-স্পন্সরদের ক্যাপিটাল গেইনে ৫% কর বহাল

0
76
Share Taka
Share Taka
Share Taka
Share Taka

পুঁজিবাজারে ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের ক্যাপিটাল গেইন বা মূলধনী মুনাফা করমুক্ত হলেও কিছু ক্ষেত্রে ৫% শতাংশ কর দিতে হবে। ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান, মার্চেন্ট ব্যাংক, বিমা, লিজিং কোম্পানি, পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি, স্টক ডিলার ও স্টক ব্রোকার কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার পরিচালক ও স্পন্সর শেয়ারহোল্ডারদের ক্ষেত্রে এ কর প্রযোজ্য হবে।

অবশ্য ২০১০ সাল থেকেই এ করহার কার্যকর। কিন্তু এনবিআরের যে প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ কর প্রযোজ্য হয়েছিল, চলতি অর্থবছরের বাজেটে সেটি বাতিল করা হয়। এ ক্ষেত্রে আলোচিত ব্যাক্তিদের ক্যাপিটাল গেইনে করের ১৫% সাধারণ হার কার্যকর হতো। নতুন প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে আগের ৫% করহার পুনর্বহাল করা হল। এটি গত ১ জুলাই থেকে কার্যকর বিবেচিত হবে।।

সোমবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারী করেছে। প্রজ্ঞাপন সরকারি শেয়ারে কিছু প্রণোদনা রাখা হয়েছে। প্রজ্ঞাপন অনুসারে স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোনো সরকারি কোনো সিকিউরিটি (যেমন-ট্রেজারি বন্ড) কেনাবেচা করে মুনাফা হলে কর দিতে হবে না।

একই প্রজ্ঞাপনে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মূলধনী মুনাফা করমুক্ত থাকবে বলে বলা হয়েছে।

স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোনো কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচা থেকে মুনাফা হলে তাকে ক্যাপিটাল গেইন বা মূলধনী মুনাফা বলা হয়।সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ক্ষেত্রে এ ধরণের মুনাফা করমুক্ত।

প্রজ্ঞাপন অনুসারে, শেয়ারহোল্ডার পরিচালক এবং স্পন্সর শেয়ারহোল্ডার ছাড়াও কোনো কোম্পানির ১০ শতাংশের বেশি শেয়ার ধারণকারী বিনিয়োগকারীদের মূলধনী মুনাফায়ও ৫% কর দিতে হবে।

শেয়ার ছাড়াও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট, ডিবেঞ্চার, বন্ড ইত্যাদি কেনা-বেচা থেকে অর্জিত মুনাফায় ৫% কর প্রযোজ্য হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এনবিআরের একজন কর্মকর্তা অর্থসূচককে বলেন, পুঁজিবাজারের বৃহত্তর স্বার্থে এ প্রজ্ঞাপন জারী করেছেন তারা। এটি জারী করা না হলে আলোচিত ব্যক্তিদেরকে মূলধনী মুনাফার উপর ১৫% হারে কর দিতে হতো।