শ্রমিক নিয়োগে মালয়েশিয়ার সিদ্ধান্তের প্রশংসায় প্রধানমন্ত্রী

0
44
hasina
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-ফাইল ছবি
hasina
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ থেকে আরো বেশি জনশক্তি নিয়োগের সিদ্ধান্তের জন্য মালয়েশিয়া সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

তিনি মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশী শ্রমিকদের বৈধতা দেয়ার জন্যও দেশটির সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

সফররত মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী রিচার্ড রায়ট আনাক জায়েম আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে সাক্ষাতকালে শেখ হাসিনা এই ধন্যবাদের কথা জানান।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, বৈঠকে পারস্পরিক বিষয় বিশেষ করে বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি নিয়োগের বিষয়ে আলোচনা হয়।

 শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিকরা কঠোর পরিশ্রমী, বিশ্বস্ত ও কর্তব্যনিষ্ঠ হওয়ায় উভয় দেশের অর্থনীতির জন্য তা কল্যাণকর হয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশী শ্রমিকরা দু’দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে।

এ প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বলেন, তার সরকার প্লানটেশন খাত ছাড়াও সরকারি উদ্যোগের আওতায় (গভর্নমেন্ট টু গভর্নমেন্ট) অবকাঠামো, সেবা ও উৎপাদন খাতে বাংলাদেশী শ্রমিক নিয়োগ করবে।

মালয়েশিয়াকে বাংলাদেশের ভাল বন্ধু হিসেবে অভিহিত করে প্রধানমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, দু’দেশের মধ্যকার বিদ্যমান বন্ধুত্ব ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক আগামী দিনগুলোতে আরো জোরদার হবে।

বৈঠকে শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মালয়েশিয়া সফরের কথা স্মরণ করে বলেন, ওই সময় (বঙ্গবন্ধুর সফর) থেকে ঢাকা ও কুয়ালালামপুরের মধ্যকার সম্পর্ক উত্তরোত্তর সুসংহত হচ্ছে।

বৈঠকে শেখ হাসিনার সফর নিয়েও আলোচনা হয়। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর কুয়ালালামপুর সফরের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান প্রেস সচিব।

প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আবদুস সোবহান সিকদার, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান সচিব ড. খন্দকার শওকত হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী ও মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার নরলিন বিনতে ওসমান অন্যান্যের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।সূত্র বাসস।