বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা পাচ্ছে সংসদ

0
34
cabinet meeting
ফাইল ছবি

cabinet meeting

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আইনের খসড়া অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। এর মাধ্যমে উচ্চ আদালতের বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা জাতীয় সংসদের হাতে ন্যস্ত করার বিধান আবার ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা খসড়া অনুমোদনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আইন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭২ সালের সংবিধানের ৯৬ অনুচ্ছেদের আলোকে এই সংশোধনী আনা হয়েছে।

১৯৭২ সালের সংবিধানের বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদের কাছে ন্যস্ত ছিল।

পরবর্তীতে জিয়াউর রহমান সামরিক ডিক্রি জারি করে ওই অনুচ্ছেদ বাতিল করেন এবং বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা ‘সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের’ কাছে ন্যস্ত করা হয়।

মোশাররাফ হোসাইন জানান, সংশোধিত আইনের খসড়ায় রাষ্ট্রপতি এবং সংসদের দুই-তৃতীয়াংশ সাংসদের অনুমতি ছাড়া সুপ্রিম কোর্টের কোনো বিচারককে অপসারণ না করার বিধান রাখা হয়েছে।

মন্ত্রিসভা বৈঠকে নীতিগত অনুমোদন পাওয়ার পর নিয়ম অনুযায়ী আইনের খসড়া সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হবে। এরপর এটি বিল আকারে সংসদে পাস হলে সংবিধানে ষোড়শ সংশোধনী অন্তর্ভুক্ত হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে তৎকালীন স্পিকার মো. আবদুল হামিদের রুলিংকে কেন্দ্র করে কয়েকজন সংসদ সদস্য হাইকোর্টের এক বিচারপতিকে অপসারণের দাবি তোলেন। এরপর থেকেই জাতীয় সংসদের হাতে বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে জোর আলোচনা শুরু হয়।