পর্যটকদের জন্য খুলছে মক্কা ক্লক টাওয়ার

0
144
Makka
মক্কা ক্লক টাওয়ার- ফাইল ছবি
macca clock tower
মক্কা ক্লক টাওয়ার- ফাইল ছবি

পর্যটকদের জন্য মক্কা ক্লক টাওয়ার আসন্ন হজের পর খুলে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন টাওয়ারের কর্মকর্তারা।

রোববার সৌদি আরবের প্রভাবশালী পত্রিকা আরব নিউজ জানিয়েছে, পর্যটকেরা এই টাওয়ার ভ্রমণের জন্য টিকেট কিনতে পারবেন।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০০২ সালে সৌদি বাদশাহ আব্দুল আজিজ প্রকল্পের অধীনে প্রস্তাবিত টাওয়ারটির কাজ শুরু হয় ২০০৪ সালে। এই টাওয়ারের মধ্যে রয়েছে হোটেল সুবিধা; ভবনটিতে রয়েছে ৭টি টাওয়ার যার ৫ম টাওয়ারেই অবস্থিত চারমুখো ঘড়ি।

উচ্চতায় ৬০১ মিটার ভবনটি পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আকাশ ছোঁয়া টাওয়ার হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ৭৬ তলা এ ভবটিতে রয়েছে ৮৫৮টি হোটেল কক্ষ। এর ওপর থেকে তাকালে কাবা শরীফ দেখা যায়।

এক কর্মকর্তা আরব নিউজকে বলেছেন, বিভিন্ন দেশের দর্শনার্থীদের জন্য টাওয়ারটি খুলে দেওয়া হবে। যাতে তারা কাছ থেকেই ক্লক টাওয়ারে ঢুকে এর সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারেন।

তিনি বলেন, টাওয়ার ভ্রমণের জন্য থাকবে টিকেটের ব্যবস্থা। চলতি বছরে হজ মৌসুমের পর টাওয়ার ভ্রমণের ব্যাপারে ঘোষণা দেওয়া হবে।

আরব নিউজ আরও জানায়,  গত রমজান মাসে প্রচুর দশনার্থী টাওয়ারের হোটেল কক্ষে ওঠে। তারা গ্রান্ড মসজিদ দেখতে আগ্রহী হলেও  পারেননি।

ক্লক টাওয়ারের অন্তর্ভুক্ত একটি হোটেলের বিপণন কর্মকর্তা আব্বাস সুভি জানান,  খুলে দেওয়ার পর থেকে টাওয়ারটি থেকে আমরা বড় ধরনের অর্থ আয় করেছি; যা আমাদের ৩ বছরে ব্যবসায়িক ক্ষতি পুষিয়ে দিয়েছে।  Mecca Clock Tower (5)

তিনি বলেন, অধিকাংশ পর্যটক টাওয়ারটিতে আসবে মূলত এর ওপর থেকে গ্রান্ড মসজিদ দেখতে। ফলে দেশের পর্যটন খাতে তা অনেক বেশি সহায়ক হবে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ৩৮০ মিটার উঁচুতে ঘড়িটি এমনভাবে স্থাপন করা হয়েছে; যা সব পার্শ্ব থেকে দেখা যাবে। ঘড়ির চার মুখের প্রত্যেক পার্শ্বে আল্লাহর নাম খোদাই করা আছে।

এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় নির্মাণাধীন প্রকল্প।

প্রসঙ্গত, প্রতিবছর এক লাখেরও বেশি বাংলাদেশি পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরব যান। কাবার সন্নিকটে টাওয়ারটি স্থাপিত হওয়ায় তারাও চাইলে ভবনটির উপর থেকে পবিত্র কাবা শরীফের পুরো সৌর্ন্দয উপভোগ করতে পারবেন।