‘সুন্দরবন ধ্বংসের খেলায় মত্ত সরকার’

0
56
Rampal
রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাতিলের দাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর সরকারি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন।

রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের মাধ্যমে সরকার সুন্দরবন ধ্বংসের খেলায় মেতে উঠেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিভিন্ন পরিবেশবাদী আন্দোলন সংগঠনের নেতারা।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে পরিবেশবাদী সংগঠনের যৌথ আয়োজনে সুন্দরবনের পাশে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাতিলের দাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর সরকারি মদদ পুষ্ট সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত নাগরিক সমাবেশে বক্তরা এই অভিযোগ করেন।

Rampal
রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাতিলের দাবিতে আন্দোলনকারীদের ওপর সরকারি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন।

বক্তারা বলেন, জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সুন্দরবনের বাংলাদেশের অংশের রামপালে কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার ও ভারতের এনটিপিসি। দেশি-বিদেশি পরিবেশবাদী সংগঠন, পরিবেশবাদী কর্মী, পরিবেশ বিজ্ঞানী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের জোর আপত্তি সত্বেও সরকার বিদ্যুতের নামে সুন্দরবন ধ্বংসের খেলায় মত্ত রয়েছে।

তারাবলেন, সরকারের মদদতপুষ্ট সন্ত্রাসীরা সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের সম্পত্তি অধিগ্রহণ করে একটি অংশে সুন্দরবনবিধ্বংসী তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অবকাঠামো তৈরি করছে।

এসময় আরও বলা হয়, গত শতকে সুন্দরবনের আয়তন ছিল ১৭ হাজার ৭শ বর্গকিলোমিটারের বেশি। কিন্তু বর্তমানে এর আয়তন ১০ হাজার কিলোমিটারে দাঁড়িয়েছে। মানুষের আগ্রাসনে দিন দিন সুন্দরবন সংকুচিত হচ্ছে।

বক্তারা বলেন, রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করে সুন্দরবনের সাথে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। সুন্দরবনকে বাঁচাতে সরকারের এমন আত্মঘাতি রামপাল কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ প্রকল্প যে কোনো মূল্যের বিনিময়ে প্রতিহত করা হবে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটস মুভমেন্ট, সেভ দ্যা সুন্দরবন ফাউন্ডেশন, বাগেরহাট ডেভলপমেন্ট সোসাইটি যৌথভাবে এই সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাপার সাধারণ সম্পাদক ডা. আব্দুল মতিন, সেফ দ্যাসুন্দরবন ফাউডেশনের চেয়ারম্যান ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম, সিপিবির কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, গ্রিস ভয়েজের যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ুন কবির সুমন, সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটস মুভমেন্টের সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

এমআই/জেইউ/এমই/