গুডবাই মাহেলা!

0
24
mahela

কালের পরিক্রমায় ১৬ বছর নেহায়েত কম নয়। এই সময়টাতে পৃথিবীটাও পাল্টে গেছে অনেকখানি। কিন্তু একজন আজও অবিচল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের ১৬ বছর কেটে গেলেও এখনো তাকে নিয়ে ক্রিকেট ভক্তদের মাতামাতি কমেনি এতটুকু। হ্যাঁ বলছি, ক্রিকেটের ভদ্রলোক মাহেলা জয়াবর্ধনের কথা। রোববার তিনি খেলে ফেললেন জীবনের শেষ টেস্ট ইনিংসটি। এই নায়কের বিদায়ে ক্রিকেট বিশ্ব নিঃসন্দেহে তার একটি দামি রত্ন হারালো।

goodbye mahela
শেষবারের মতো দর্শকদের উদ্দেশ্যে ব্যাট উঁচিয়ে ধরছেন মাহেলা (বামে)। পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা বিদায় অভিবাদন জানাচ্ছেন মাহেলাকে (ডানে)।

কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব (এসএসসি) মাঠে ৫৪ রানে শেষ হয়েছে তার শেষ টেস্ট ইনিংস। বিদায়ী ইনিংসে অর্ধশতক পেলেও সমর্থকদের প্রত্যাশার পারদ ছিল আরও ঊর্ধ্বমুখী। কিন্তু পাকিস্তানি অফ স্পিনার সাঈদ আজমলের বলেই থমকে যায় তার শেষ টেস্ট ইনিংসটি।

৪৯ রানে দিন শুরু করেই খুব তাড়াতাড়িই পৌঁছে গিয়েছিলেন তার ৫০তম টেস্ট অর্ধশতকের ঘরে।
কিন্তু আজমলের বলে ক্ষণিকের ভুলেই সব শেষ। মিড উইকেটে আহমেদ শেহজাদের নিচু ক্যাচটি এসএসসির দর্শকদের থমকে দিলেও, পরক্ষণেই তারা নিজেদের সামলে বিদায়-সংবর্ধনা দিয়েছেন জয়াবর্ধনেকে।
যে ক্রিকেট তার জীবন, যে ক্রিকেট মিশে আছে তার নিঃশ্বাসে, সেই ক্রিকেটের সঙ্গে বন্ধন ছিন্ন করে মাঠ থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন মাহেলা!

পাকিস্তানি ক্রিকেটাররাও শামিল হলেন জয়াবর্ধনের বিদায় মুহূর্তটিকে স্মরণীয় করতে, সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে খুব ধীরে করতালির মাধ্যমে বিদায় জানালের চিরদিনের এই গ্রেট প্রতিপক্ষকে।

আসলে এমন নায়কেরা কখনও বিদায় নেন না, তিনি বেঁচে থাকবেন ক্রিকেটের অস্তিত্বের সাথে। বেঁচে থাকবেন ক্রিকেটের পরতে পরতে।

ইউএম/