পিনাক-৬ মালিকের ছেলে লিমন কারাগারে

0
39
Launch
মাওয়াঘাটের একশ’ গজ দূরে পদ্মায় তলিয়ে যায় পিনাক-৬ লঞ্চটি। ভোররাত পর্যন্ত ১১৫ জনের নাম নিখোঁজের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার লঞ্চ ও নিখোঁজ যাত্রীদের উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ছবি: মহুবার রহমান
Launch
গত ৪ আগস্ট সোমবার বেলা ১১টায় মাওয়াঘাটের একশ’ গজ দূরে পদ্মায় তলিয়ে যায় পিনাক-৬ লঞ্চটি। । ছবি: মহুবার রহমান

মুন্সীগঞ্জে পদ্মায় ডুবে যাওয়া লঞ্চ এমএল পিনাক-৬ এর মালিকের ছেলে ওমর ফারুক লিমনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি লঞ্চডুবি মামলার ৩ নম্বর আসামি।

আজ শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে লিমনকে জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী-৬ আদালতে হাজির করে তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন লৌহজং থানার এসআই জুলহাস মিয়া।

পরে জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জাহানারা ফেরদৌস আগামী ১৮ আগস্ট সোমবার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিকেল পৌনে ৪টার দিকে আদালত থেকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয় লিমনকে।

শুক্রবার ভোরে রাজধানীর ক্ষিলক্ষেত এলাকা থেকে ওমর ফারুক লিমনকে  গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১। তবে বিকেলের দিকে তাকে লৌহজং থানায় হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে গত বুধবার ভোরে চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদ হাউজিং এলাকা থেকে লঞ্চ মালিক আবু বকর সিদ্দিককে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৪ আগস্ট মাওয়া লঞ্চঘাটের অদূরে পদ্মা নদীতে আড়াই শতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যায় এমএল পিনাক-৬। মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে ৪৭ জনের। এখনো নিখোঁজ ৬১ জন । পরিচয় শনাক্ত হওয়ায় স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে ২৮টি।

এএসএ/