‘অধিকারের’ বিষয়ে দুদকের সিদ্ধান্ত এক মাসেই

0
60
Odhikar_dudok

মানবাধিকার সংগঠন ‘অধিকারের’ বিরুদ্ধে বৈদেশিক অনুদানের অর্থ আত্মসাতের যে অভিযোগ তার ফয়সালা আগামী এক মাসের মধ্যেই হবে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা। তিনি বলছেন, এ সংক্রান্ত অনুসন্ধানী প্রতিবেদন সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে কমিশনে জমা দেওয়া হবে।

সূত্র জানায়, গত বছরের জুলা্ই মাসে অধিকারের বিরুদ্ধে দুদকের কাছে অভিযোগ আসে মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে বিদেশ থেকে আসা কোটি কোটি টাকা ভুয়া খরচ দেখিয়ে আত্মসাৎ করেছেন সংস্থাটির সম্পাদক আদিলুর রহমান শুভ্র।

অভিযোগটি আমলে নিয়ে গত আগস্ট মাসে সংস্থাটির আয়ের উৎস এবং তার কর্মকর্তাদের অর্থ আত্মসাতের বিষয়টি অনুসন্ধান শুরু করে কমিশন। এরপর চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি সংস্থাটির সম্পাদক আদিলুর রহমান ও সভাপতি নাসির উদ্দিন এলানকে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এরপর দীর্ঘ সাত মাস অধিকারের কর্মকর্তাদের জবানবন্দি, এনজিও ব্যুরোর তথ্য ও অধিকারের কাগজপত্র পর্যালোচনা করা হয়েছে। এখন শুধু প্রতিবেদন তৈরি বাকি; যা আগামী এক মাসের মধ্যেই সম্পন্ন হবে বলে অর্থসূচককে নিশ্চিত করেছেন দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট ওই সূত্র।

অধিকারের বিরুদ্ধে দুদকে আসা অভিযোগে বলা হয়, বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও মানবাধিকার সংগঠন ‘অধিকার’ তাদের গবেষণার কাজে বিদেশি বিভিন্ন এনজিও থেকে কোটি কোটি টাকা অনুদান পায়। বিদেশ থেকে আনা এসব অনুদানের অর্থ সংস্থাটি সঠিকভাবে ব্যবহার করছে না।

তাছাড়া তারা বিভিন্ন সময়ে বিদেশি দাতা সংগঠন থেকে নানা রকম প্রকল্প দেখিয়ে মোটা অংকের অর্থ নিয়ে সংস্থাটি। সংস্থার সম্পাদক আদিলুর রহমানসহ এর কর্মকর্তারা যোগসাজসে মানি লন্ডারিংয়ের মাধ্যমে বিদেশি বিভিন্ন সংস্থা থেকে পাওয়া এসব অর্থ আত্মসাৎ করে।

এ প্রসঙ্গে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা ও দুদকের উপ-পরিচালক হারুনুর রশিদ অর্থসূচককে বলেন, অধিকার বিদেশি সংস্থা থেকে পাওয়া অর্থ আত্মসাৎ করতো বলে দুদকে অভিযোগ আসে। অভিযোগের ভিত্তিতে তার কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ ও তাদের দেওয়া বিভিন্ন রেকর্ডপত্র পর্যালোচনা করা হয়েছে। একই সাথে এনজিও ব্যুরো থেকে আসা সব কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। এক মাসের মধ্যেই প্রতিবেদন কমিশনে দাখিল করা হবে। তবে অধিকারের কাজ বিদেশি দাতা গোষ্ঠীর সাথে সংশ্লিষ্ট বিধায় এ বিষয়ে বড় পদক্ষেপ নেওয়া কঠিন হবে।Hefajot

তিনি জানান, অধিকার মানবাধিকার সংগঠন হওয়ায় এদের কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন করার সুযোগ কম। অর্থের লেনদেন এনজিও ব্যুরোর অনুমোদন নিয়েই হয়েছে। তবে কিছু কিছু বিষয়ে অস্বচ্ছতা থাকলে তার জবাব দেওয়ার কথা রয়েছে। এ মাসের মধ্যেই এসব বিষয় চূড়ান্ত হবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৫ মে রাজধানীর মতিঝিল থেকে হেফাজতে ইসলামের কর্মীদের সরাতে পরিচালিত অভিযানে ৬১ জন নিহত হয় বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করে ‘অধিকার’। যদিও সরকারের দাবি, মতিঝিলে ওই অভিযানে কোনো প্রাণহানি হয়নি।

অধিকারের ওই প্রতিবেদনের পর গত বছরের ১০ অাগস্ট সংগঠনটির সম্পাদক আদিলুর রহমান শুভ্রকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর তার বিরুদ্ধে বিদেশি অনুদানের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ উঠলে তা অনুসন্ধান শুরু করে দুদক। আদিলুর রহমান জামিনে রয়েছেন।