ক্ষুদিরামদের ‘সন্ত্রাসবাদী’ বললে ক্ষতি কোথায়?

0
41
khudiram
ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের শুরুর দিকের সর্বকনিষ্ঠ বিপ্লবী ছিলেন ক্ষুদিরাম বসু। বোমা হামলার অভিযোগে ব্রিটিশ সরকার তাকে ফাঁসি দেয়।
khudiram
ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের শুরুর দিকের সর্বকনিষ্ঠ বিপ্লবী ছিলেন ক্ষুদিরাম বসু। বোমা হামলার অভিযোগে ব্রিটিশ সরকার তাকে ফাঁসি দেয়।

ক্ষুদিরাম-প্রফুল্লরা ‘সন্ত্রাসী’ শিরোনামে কয়েকদিন আগে ভারতের বার্তা সংস্থা জি নিউজে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর থেকেই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়।

সেই বিতর্কের অবসান ঘটাতে এবার গল্পের লেখক ইতিহাস গবেষক অনির্বাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, কেউ বলে সন্ত্রাসবাদী কেউ বলে বিপ্লবী, অষ্টম শ্রেণির ইতিহাসে ক্ষুদিরাম বসুদের ‘বিপ্লবী সন্ত্রাসবাদী’ বললে ক্ষতি কোথায়? ছেলেমেয়েরা কি বুঝবে না, ক্ষুদিরাম আর কসাবের মধ্যে তফাৎ কোথায় এবং কেন?

শনিবার ভারতের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের এক সম্পাদকীয় কলামে তিনি ক্ষুদিরাম, প্রফুল্ল চাকীদের নিয়ে এ মন্তব্য করেন।

কসাব ২০০৮ সালে মুম্বাইয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসবাদী হামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পান। গত বছরই ফাঁসি হয় তার।

সম্পাদকীয় কলামে ভারতের এডুকেশন মাল্টিমিডিয়া রিসার্চ সেন্টার-এ কর্মরত অনির্বাণ বলেন, শিরোনামটি অনন্ত সিংহের আত্মজীবনীর নাম থেকে নেওয়া। কেবল একটা শব্দ বদলে দিয়েছি। ছিল ডাকাত, করেছি সন্ত্রাসবাদী। চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনে সূর্য সেনের সহযোগী অনন্ত সিংহ। অনন্ত ও তার অন্যান্য সহযোদ্ধা পরে আত্মজীবনী লেখেন।

তিনি বলেন, ক্ষুদিরামদের সন্ত্রাসবাদী বলায় যাদের আপত্তি, তাদের যুক্তি মূলত দুটি।

এক, ২০০১ সালের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ধ্বংসের পর থেকে সাধারণ অর্থে ‘সন্ত্রাসবাদী’ শব্দটির যে ভয়ানক দ্যোতনা, তার মূল কথা হল, নির্বিচারে গণহত্যার ঠিকাদার। এই শব্দ দিয়ে ক্ষুদিরামদের বর্ণনা করার অর্থ তাদের স্বার্থত্যাগের অপমান বা অপলাপ।

দুই, কোমলমতি কিশোর-কিশোরীদের ভুল ইতিহাস শেখানো।

অনির্বান বলেন, স্কুলের পাঠ্যবই ইতিহাসের  সবচেয়ে বড় ধারক ও বাহক। লাখ লাখ ১৩ বছরের শিক্ষার্থী এই সরকারি বইটি পড়বে। এদের বেশির ভাগই  হয়তো ২ বছর পর নিয়মিত ইতিহাস পড়বে না।  এ প্রেক্ষিতে শব্দটির এমন অবাঞ্ছিত ব্যবহার মেনে নেওয়া যায় কি?

এক নম্বর যুক্তির মূলে ক্ষুদিরাম কিংবা সূর্য সেন থাকলে দুই নম্বর যুক্তির ফলভোগী অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরা। বিতর্ক সৃষ্টিকারীদের ভাষায়, সন্ত্রাসবাদী শব্দটির  বিভিন্ন অর্থের সূক্ষ্ম পার্থক্য বোঝার মতো মানসিক পরিণতি এদের থাকতে পারে না।

তিনি বলেন, খেয়াল করা দরকার, ইতিহাসবিদরা সন্ত্রাসবাদী বললেই ক্ষুদিরাম বিন লাদেন হয়ে যান না। কিন্তু তা বোঝার ক্ষমতা সাড়ে তেরো বছর বয়সি এ শিক্ষার্থীদের  থাকতে পারে।

এস রহমান/