পিনাক-৬ এর মালিক কারাগারে

0
117
abu-bakar
পিনাক-৬ লঞ্চের মালিক আবু বকর সিদ্দিককে বৃহস্পতিবার কারাগারে নিচ্ছে পুলিশ।

মাওয়ায় ডুবে যাওয়া পিনাক-৬ লঞ্চের মালিক আবু বকর সিদ্দিককে বৃহস্পতিবার কারাগারে পাঠিয়েছেন মন্সিগঞ্জের আমলি আদালত-৬।
৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করেন। আদালত ১৮ আগস্ট রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে তাকে কারাগারে পাঠান।

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তোফাজ্জল হোসেন জানান, গতকাল রাত পৌনে সাতটার দিকে র‌্যাব তাকে লৌহজং থানায় হস্তান্তর করে। আজ তাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়।

কোর্ট পরিদর্শক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, বেলা একটার সময় আবু বকর সিদ্দিককে আমলি আদালত-৬-এ হাজির করা হয়। রিমান্ডের আবেদনের শুনানির জন্য ১৮ আগস্ট তারিখ ধার্য করে বিচারিক হাকিম মো. হারুন-অর রশীদ তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লৌহজং থানার উপপরিদর্শক জুলহাস জানান, রিমান্ড পেলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

৪ আগস্ট মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাওড়াকান্দি থেকে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে মাওয়ায় আসার পথে বেলা ১১টার দিকে ডুবে যায় পিনাক-৬। এ ঘটনায় মোট ৪৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় মাওয়া নৌপরিবহন পরিদর্শক (টিআই) জাহাঙ্গীর আলম ভূইয়া বাদী হয়ে পিনাকের মালিক আবু বকর সিদ্দিকসহ ছয়জনকে আসামি করে লৌহজং থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে পলাতক ছিলেন আবু বকর।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া তিনটার দিকে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসা থেকে আবু বকর সিদ্দিককে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

বুধবার রাজধানীর উত্তরায় র‌্যাব কার্যালয়ে তিনি সাংবাদিকদের কাছে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। তিনি এই লঞ্চ দুর্ঘটনার দায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) ও ঘাট ইজারাদারদের ওপর চাপান। তার দাবি, লঞ্চে পর্যাপ্ত লাইফ জ্যাকেট, বয়া ছিল।