‘স্বর্গপুরী’র রাস্তা হচ্ছে

0
95
Mount Everest
মাউন্ট এভারেস্ট।

মাউন্ট এভারেস্ট ভ্রমণকে আরও সহজ করতে জুরি থেকে লুকলা পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ করবে নেপাল সরকার। সড়কটি হবে মাউন্ট এভারেস্টের সদর দরজা। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে মাউন্ট এভারেস্টের বেস ক্যাম্প পর্যন্ত ভ্রমণ খরচও অনেক কমে যাবে।

Mount Everest
মাউন্ট এভারেস্ট।

দ্য কাঠমুন্ডু পোস্টের বরাত দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার ডেইলি মেইল জানিয়েছে, বিভিন্ন ভ্রমণ সংগঠনের দাবির প্রেক্ষিতে রাস্তাটি তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সম্প্রতি নেপাল সরকার ঘোষণা দিয়েছে, জুরি থেকে লুকলা পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটারের মহাসড়ক বানানো হবে। এর মাধ্যমে ট্র্যাকার্স এবং মাউন্টেইনার্সদের ৪ দিনের পায়ে হাঁটার পথ কমবে। আর দর্শনার্থীরা খুব সহজে বেস ক্যাম্প পর্যন্ত ভ্রমণ করতে পারবেন।

পায়ে হাঁটা এড়াতে ভ্রমণকারীরা কাঠমুন্ডু থেকে লুকলা পর্যন্ত বিমানযোগে যান এই দীর্ঘ পথ। অনেক সময় খারাপ আবহাওয়ার কারণে ফ্লাইট বিভ্রাট ঘটে। যা পর্যটকদের ভ্রমণে নেতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করে। সড়কটি তৈরি হলে এসব সমস্যায় পড়তে হবে না পর্যটকদের।

অনেক সময় দেখা যায়, খারাপ আবহাওয়ার কারণে বিমানের ফ্লাইট বিভ্রাটে শত শত ভ্রমণকারী লুকলা বিমানবন্দরে অবতরণ করতে পারেন না। এ সমস্যায় তাদের ফিরে যেতে হয় কাঠমুন্ডু। এতে জনপ্রতি অতিরিক্ত ৩০০ ডলার খরচ করতে হয়।

এদিকে কাঠমুন্ডু অনেক ব্যয়বহুল। এখানে একটি গ্যাস সিলিন্ডারের দাম ৬০ ডলার। এমনকি ১ কাপ চা-এর ন্যূনতম দাম দেড় ডলার।

নেপালের মাউন্টেইনার এসোসিয়েশনের সভাপতি শেরিং শেরপা বলেছেন, সড়কটি নির্মিত হলে দেশে পর্যটক প্রচুর বাড়বে। অন্যদিকে পণ্য পরিবহন খরচও অনেক কমে যাবে।

উল্লেখ, প্রতি বছর অন্তত ৩৫ হাজার পর্যটক এভারেস্ট ন্যাশনাল পার্ক ভ্রমণ করেন।