জার্মান অধিনায়কত্ব নিতে প্রস্তুত নয়ার

0
56

বিশ্বকাপের সেরা গোল রক্ষক; ২০১৩ সালে বিশ্বের সেরা গোলরক্ষক; এবার জার্মানির ফুটবলার অফ দ্য ইয়ার। ‘কিকার’ ম্যাগজিনের বাৎসরিক জরিপে ক্রীড়া সাংবাদিকরা যে ৭০১টি ভোট দিয়েছেন, তার মধ্যে নয়ার পেয়েছেন ১৪৪টি ভোট। ২০১১ সালেও নয়ার জার্মানির সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

manuel neuer
ম্যানুয়েল নয়ার

এবার যদি জার্মানির কোচ অফ দ্য ইয়ার জোয়াকিম লো নয়ারকে ক্যাপ্টেনসির দ্বায়িত্ব দেন, তবে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।
জার্মানির সদ্য-নির্বাচিত ‘ফুটবলার অফ দ্য ইয়ার’ মানুয়েল নয়ার ‘কিকার’ ম্যাগাজিনের সাক্ষাৎকারে বলেছেন, আমি অবশ্যই নিজেকে ক্যাপ্টেন পদের যোগ্য বলে মনে করি। তবে নির্বাচনটা কোচ এবং অন্যান্য খেলোয়াড়দের হাতে।

নিজে কোচ হলে তিনি মিডফিল্ডের কোনো খেলোয়াড়কে ক্যাপ্টেন করতেন। আবার এও বলেছেন গুরু জোয়াকিম লো প্রস্তাব দিলে তিনি সে দায়িত্ব এড়িয়ে যাবেন না – অর্থাৎ তাঁর ক্যাপ্টেন হতে আপত্তি নেই।

লম্বা, ঢ্যাঙা ,শক্তিশালী এই গোলকিপার গত বিশ্বকাপে জার্মান দলের সাফল্যের অন্যতম নায়ক ছিলেন।

পেনাল্টি এরিয়ার বাইরে যার খেলা দেখলে কখনো মনে হবে ডিফেন্ডার, কখনো বা স্টপার। নিজের গণ্ডির মধ্যে দাঁড়িয়ে বিপক্ষের আক্রমণের প্রতীক্ষা করার মতো গোলরক্ষক তিনি নন। লছমনরেখা ছেড়ে বেরিয়ে প্রতিপক্ষকে রীতিমতো তাড়া করে প্রপার ডিফেন্ডারের মতো ট্যাকল করে বল ছিনিয়ে নেওয়া; পেনাল্টি এরিয়ার বাইরে হেড করে বল ক্লিয়ার করা, এ সব খেলাই দেখিয়েছেন নয়ার ব্রাজিল বিশ্বকাপে।

নয়ার ইতোমধ্যেই তাঁর নিজস্ব গোলকিপিং-এর স্টাইল তৈরি করে ফেলেছেন। ২০১১ সালে শালকে থেকে বায়ার্নে যাওয়ার পর তাঁর আত্মবিশ্বাস বাড়ে বটে, কিন্তু হালের বিশ্বকাপ সেই আত্মবিশ্বাসের এমন একটা বুনিয়াদ গড়ে দিয়েছে, যার উপর ভিত্তি করে মানুয়েল নয়ার অনায়াসে জাতীয় পর্যায়ে আরো এবং অনেক বড় দায়িত্ব নিতে পারেন।

বিশ্বকাপ জয়ী জার্মান জাতীয় ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন ফিলিপ লাম ১৩ই জুলাই মারাকানায় বিশ্বকাপ শিরোপা উঁচিয়ে ধরার ৫ দিন পরেই অবসরের ঘোষণা দেন।

ইউএম/