অল্পের জন্য রক্ষা পেল ইউনাইটেডের বিমান

0
75

মাস্কট থেকে দেশে ফেরার সময় ভারতের আকাশে দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের একটি উড়োজাহাজ। এতে ১৪৮ জন যাত্রী ছিল।

united airways
ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের একটি বিমান। ফাইল ছবি

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, কলকাতা এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের নির্দেশ অনুযায়ী, নিচে নামতে গিয়ে অপরদিক থেকে আসা একটি বিমান দেখতে পেয়ে আবার ওপরের দিকে যাওয়ায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের উড়োজাহাজ।

কলকাতার এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের কর্মকর্তারা এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি না হলেও ভারতের জাতীয় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে বলে এনডিটিভির খবরে জানানো হয়েছে।

ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের বৈমানিক ক্যাপ্টেন আফিউল ইসলাম বলেন, ঢাকায় আসার পথে ২৭০ মাইল দূরে ৩৩ হাজার ফুট উচ্চতায় কলকাতা পার হওয়ার সময় কলকাতার এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল তাকে ২৯ হাজার ফুট উচ্চতায় নেমে আসতে বলে। এরপরই ‘ট্রাফিক কলিশন অ্যাভয়ডেন্স সিস্টেম’ থেকে জানানো হয়, ৩২ হাজার ফুট উচ্চতায় একটি বিমান এগিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, আকাশে কোনো মেঘ না থাকায়, স্পষ্ট দেখতে পেয়েছে, বিপরীত দিক থেকে একটি বিমান এগিয়ে আসছে। সেটি ৩২ হাজার ফুট উচ্চতায় ছিল। ওই বিমানকে দেখতে পেয়ে তা কলকাতা এয়ার কন্ট্রোলকে জানিয়ে আমি দ্রুত আবার ৩৩ হাজার ফুট উচ্চতায় ফিরে যাই। এতে বিমান দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাই।

এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করা হবে জানিয়ে আফিউল ইসলাম বলেন,নিশ্চই কলকাতা এয়ার কন্ট্রোলের কোনো ভুল হয়েছিল। কন্ট্রোল রুমের সাথে আমার সব কথাবার্তার রেকর্ড আছে। চাইলেই সেটা পরীক্ষা করতে পারে।

তিনি বলেন, বিপরীত দিক থেকে আসা বিমানটি সৌদি এয়ারলাইন্সের কার্গো বিমান হতে পারে বলে ধারণা করছি। সেটি কোন বিমানবন্দর থেকে কোথায় যাচ্ছিল তা স্পষ্ট নয়। তবে সেটি হংকং থেকে আসা কার্গো ফ্লাইট ৯৮৩ হতে পারে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের নিয়ম অনুযায়ী, আকাশ পথে ওপরে ও নিচ দিয়ে চলা দুটি বিমানের মধ্যে অন্তত এক হাজার ফুট ব্যবধান রাখতে হয়।

এমই/