সেঞ্চুরির কাছাকাছি লাফার্জ সুরমা

0
86
Lafarge-supercrete
লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট
Lafarge supercrete
লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট

চাঙ্গা পুঁজিবাজারে শেয়ার দরের উর্ধ্বগতি ধরে রেখেছে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড। সোমবার টানা চতুর্থ দিনের মতো বেড়েছে এর শেয়ারের দাম। দিনশেষে শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ৯৮ টাকা ৮০ পয়সা। দিনের লেনদেনের এক পর্যায়ে এটি নার্ভাস ৯৯ এ উঠে গিয়েছিল।তবে শেষভাগে এসে বিক্রি আর স্নায়ুর চাপে মূল্য কিছুটা কমে আসে।

রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের শেয়ারের ক্লোজিং প্রাইস ছিল ৯৫ টাকা ৩০ পয়সা।আজ সোমবার এ শেয়ারের লেনদেন শুরু হয় আগের দিনের চেয়ে ১ টাকা ৪০ পয়সা বেশি তথা ৯৬ টাকা ৭০ পয়সা দরে।এটিই ছিল দিনের সর্বনিম্ন দর।বেশিরভাগ লেনদেন হয়েছে ৯৮ টাকার কাছাকাছি দরে।এদিন ডিএসইতে লাফার্জের ২৪ লাখ ৬৫ হাজার শেয়ার কেনাবেচা হয়।এর মোট মূল্য ২৪ কোটি ১২ লাখ টাকা।

বাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, পদ্মা সেতু এবং বড় কিছু অবকাঠামোকে সামনে রেখে সিমেন্ট খাতের প্রতি বিনিয়োগকারীদের ঝোঁক বাড়ছে। তারা মনে করছেন, এসব অবকাঠামোর জন্য বিপুল পরিমাণ সিমেন্টের প্রয়োজন হবে। তাতে কোম্পানিগুলোর মুনাফা বাড়বে। বহুজাতিক কোম্পানি হিসেবে লাফার্জ পেতে পারে কিছু বাড়তি সুবিধা। কারণ দেশে একমাত্র লাফার্জই পূর্ণাঙ্গ সিমেন্ট কারখানা। এরা নিজস্ব চুনাপাথর থেকে ক্লিংকার তৈরি করে। আর সে ক্লিংকার থেকে প্রস্তুত করা হয় সিমেন্ট। কোম্পানিটির সিমেন্টের চাহিদা বাড়তে থাকায় ইতোমধ্যে মদিনা সিমেন্ট ও মেট্রোসেম সিমেন্ট এর কারখানা ভাড়া নিয়েছে।

তবে বিশ্লেষকদের কেউ কেউ সতর্কতার সাথে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিনিয়োগকারীদের। কারণ কোম্পানিটির উৎপাদিত সিমেন্টের যত চাহিদাই থাকুক না কেনো, তাতে শেয়ার প্রতি আয় এতো বেশি বাড়বে না। কারণ এ কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন অনেক বড়। কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস ১ টাকা বাড়াতে হলে বছরে ১১৬ কোটি টাকা বাড়তি মুনাফা করতে হবে, যা খুব সহজ নয়।