ধীর হয়ে পড়েছে লেনদেনের গতি

0
53
dse index
সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারা
dse index
ডিএসইতে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারায় লেনদেন

 ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) অনেক দিন পর ৮০০ কোটি টাকার বেশি লেনদেনের সম্ভাবনা দেখা দিলেও শেষ পর্যন্ত  তা হচ্ছে না। প্রথম তিন ঘন্টায় লেনদেনে যে গতি  ছিল, শেষ ঘণ্টায় তা আর থাকেনি। আর এ কারণে লেনদেনের পরিমাণ নেমে আসতে পারে রোববারের নিচে।

ঈদের ছুটির পর হঠাৎ পুঁজিবাজারে নতুন গতি সঞ্চার হয়েছে। বাড়ছে লেনদেন ও সূচক। এতে দীর্ঘদিন সাইডলাইনে থাকা বিনিয়োগকারীরা কিছুটা আস্থা ফিরে পেয়েছেন। তারা ফের সক্রিয় হয়েছেন বাজারে। অন্যদিকে ঋণ চাহিদা কমে যাওয়ায় কয়েকটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানও পুঁজিবাজারের দিকে ঝুঁকেছে। এতে বাজারে এসেছে নতুন গতি।

এরই ধারাবাহিকতায় রোববার ডিএসইতে ৭৬৩ কোটি টাকার লেনদেন হয়, যা ছিল গত ৮ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। আজ দিনের শুরুটাও ছিল আগের দিনের মতো। প্রথম আড়াই ঘন্টায় আগের দিনের চেয়েও গতিশীল ছিল বাজার। ওই ধারা বজায় থাকলে আজ লেনদেন ৮০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতো। কিন্তু শেষ বেলায় কিছুটা ধীর হয়ে পড়ে এর গতি।

দুটি কারণে শেষ পর্যন্ত ৮০০ কোটি টাকার লেনদেন হচ্ছে না বাজারে। প্রথমত আজ শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেডের (এসপিসিএল) লেনদেন বন্ধ রেখেছে স্টক এক্সচেঞ্জ। অন্যদিকে মুনাফা তুলে নেবার কারণে শেষ বেলায় অনেক কোম্পানির শেয়ারের দাম কমে যায়। আমাদের বাজারে পড়তি বাজারে বিনিয়োগকারীরা নতুন বিনিয়োগে আগ্রহী হয় না।


অর্থসূচক/এসএ/