জামানত ফেরত চান প্রাইম ব্যাংকের ২৭শ’ গ্রাহক

0
133
prime Bank
প্রাইম ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।
prime Bank
প্রাইম ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।

গী প্রতিষ্ঠানের ২ হাজার ৭ শজন গ্রাহকের জামানতের টাকা ও বকেয়া বেতনের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রাইম ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিয়ের প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীরা এক মানববন্ধনে এ দাবি জানান।

ভুক্তভোগীরা বলেন, প্রাইম ব্যাংকের লোগো সম্বলিত সংবাদ মাধ্যমে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখে তারা বিভিন্ন পদে আবেদন করেন। এসব পদ বেদে তাদের কাছ থেকে ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত ফেরতযোগ্য জামানত নেওয়া হয়েছে। তখন তাদের পদবেদে বেতন দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল।

তারা বলেন, নিয়োগের প্রায় দুবছর পার হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত তাদের কোনো বেতন দেওয়া হয়নি। এমনকি তাদের জামানতের টাকাও ফেরত দেওয়া হচ্ছে না।

এতে হতাশা ব্যক্ত করে বক্তারা বলেন, গত ৬ আগস্ট বাংলাদেশ ব্যাংক প্রাইম ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং অনুমোদন বাতিল করার পর থেকে গ্রাহকরা আতংকের মধ্যে রয়েছে। এখন পর্যন্ত জামানতের টাকা ও বকেয়া বেতন পরিশোধের বিষয়ে কোনো আশ্বাস করেনি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

এসময় বকেয়া বেতন ও জামানত ফেরতের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগী পীরগঞ্জের মহীদুল হক, নাটোরের রনি শাহা, লালমনিরহাটের মশিউর রহমান, গোলাম কিবরিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জেইউ/