৬ মাস পর লেনদেন ছাড়িয়েছে ৭০০ কোটি

0
120
DSE-UP
ডিএসই সূচক ঊর্ধ্বমুখী

DSE-CSE UPছয় মাস পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন ৭০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। রোববার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৬৩ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার। একই সাথে উভয় পুঁজিবাজারে সব ধরনের মূল্য সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে ৬ ফেব্রুয়ারী ডিএসইতে ৭৭০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। কিন্তু এর পরে ক্রমেই লেনদেন কমতে থাকে পুঁজিবাজারে। বিনিয়োগকারীরা দিশেহারা হয়ে সাইডলাইনে সরে যায়। পুঁজিবাজারকে গতিশীল করার দাবিতে কয়েকবার আনন্দোলনও করে বিনিয়োগকারীরা।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, রোববার ডিসইতে আগের দিনের তুলনায় ১৭৫ কোটি টাকার বেশি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৫৮৮ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

পুঁজিবাজারের এই চাঙ্গা অবস্থার পেছনে তিনটি কারণ রয়েছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, ঈদের ছুটির পর থেকে বাজারে ইতিবাচক ধারা অব্যাহত রয়েছে। ফলে বিনিয়োগকারীদের বাজারের ওপর আস্থা ক্রমেই বাড়ছে।

দ্বিতীয়ত, ব্যাংকে আমানত সুদের হার কমে গেছে। এর ফলে মানুষ এখন পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের দিকে ঝুঁকছে। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংক নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করেছে। ওই সময় গভর্ণর পুঁজিবাজারবান্ধব মুদ্রানীতির কথা বলেন। বিষয়টি কার্যকর না হলেও বিনিয়োগকারীদের মনস্তাত্ত্বিক কারণেও পুঁজিবাজারের ওপর ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে।

রোববার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৫৩০ পয়েন্টে। শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক ২০ পয়েন্ট  বেড়ে অবস্থান করছে ‌ এক হাজার ৪৭ পয়েন্টে। একইভাবে ডিএস৩০ সূচক ২৬ পয়েন্ট কমেছে। এই সূচক অবস্থান করছে ১ হাজার ৬৭৮ পয়েন্টে।

রোববার লেনদেন হওয়া ১৬৫টি কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। লেনদেনে অংশ নিয়েছে ২৯৯ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর কমেছে ১০০ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির।

এদিকে ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেনের শীর্ষ দশ কোম্পানি হচ্ছে- এমজেএলবিডি, স্কয়ার ফার্মা, গ্রামীণ ফোন, অ্যাক্টিভ ফাইন, বেক্সিমকো, হা-ওয়েল টেক্সটাইল বিডি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, পদ্মা অয়েল, এসি আই এবং সামিট পাওয়ার লিমিটেড।

 অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৭৮ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। রোববার সিএসই সার্বিক সূচক ১৬৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩ হাজার ৯৬২ পয়েন্টে। সিএসইতে এই দিন মোট লেনদেন হয়েছে ২২৮টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৩টির, কমেছে  ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

অর্থসূচক/এসএ/