পেঁয়াজ ও ডিমের দাম বেড়েছে

0
62
Onion-1
পেঁয়াজ-ডিমের ফাইল ছবি
Onion-1
পেঁয়াজ ও ডিমের দাম বেড়েছে- ফাইল ছবি

রাজধানীতে খুচরা বাজারে পেঁয়াজ ও ফার্মের মুরগির ডিমের দাম বেড়েছে। এছাড়া গত ২ দিনের ব্যবধানে কাঁচাবাজারে বেগুন, কাঁচামরিচ ও করলার দামও কিছুটা বেড়েছে।

রোববার রামপুরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ২ দিনের ব্যবধানে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ৪০-৪২ টাকা থেকে বেড়ে ৪৪-৪৫ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৩৮-৪০ টাকা থেকে ৪২-৪৩ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

দেশি আদা কেজিতে ১০ টাকা কমে ১৭০-১৯০ টাকায়, চায়না আদা ২৪০-২৫০ টাকা, রসুন একদানা ১৫০ টাকা, বড় রসুন ৮০-৯০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ব্রয়লার মুরগির লাল ডিম হালি প্রতি ২ টাকা বেড়ে ৩৪ টাকা এবং হাঁসের ডিম ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

চালের বাজারে পারিজা চাল কেজিতে ২ টাকা বেড়ে ৩৯-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে অন্যান্য চাল আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে।

কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত দুই দিনের ব্যবধানে কাঁচামরিচ ১২০ টাকা থেকে বেড়ে ১৪০ টাকা, বেগুন ৩০-৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৪০-৫০ টাকা এবং করলা ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া কাঁকরোল ৩০ টাকা, বরবটি ৪০ টাকা, শসা ৩০-৪০ টাকা, সিম ৯০ টাকা, ঝিঙ্গা ৪০ টাকা, কচুর মুখি ৫০ টাকা, পেঁপে ২৫-৩০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, আলু ২৫ টাকা, ধুন্দল ৪০ টাকা, দেশি গাজর ৫০-৬০ টাকা, কচুর লতি ৪০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, প্রতি হালি লেবু ২০-৩০ টাকা ও কাঁচাকলা হালি ২৫-৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

দোকানিরা ফুল কপি ২৫-৩০ টাকা, বাঁধা কপি ২৫ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩৫-৪০ টাকা, জালি কুমড়া ২৫-৩০ টাকা, লাউ ৪০-৫০ টাকা, সবুজ শাক আটি ৮ টাকা, লাউ শাক ২০ টাকা, লাল শাক ৫ টাকা, মুলা শাক ৫ টাকা, পুঁইশাক ১৫-২০ টাকা, ডাটা ১০-১৫ টাকা, কলমি শাক ৫ টাকা ও ধনে পাতা (১০০ গ্রাম) ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাংসের বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ১৬০ টাকা, লেয়ার মুরগি ১৭৫ টাকা, গরুর মাংস ৩০০ টাকা, খাসির মাংস ৪৮০-৫০০ টাকা ও কবুতর জোড়া ১৮০-২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পাবদা ৬০০-৭০০ টাকা, মলা ৪৫০-৫০০ টাকা, চায়না পুটি ২০০-২৫০ টাকা, সিলভার কার্প ১৫০-১৮০ টাকা, প্রতি কেজি পাঙ্গাস ১৩০-১৮০ টাকা, রুই ২৬০-৩৮০ টাকা, রুপচাদা ১০০০-১১০০ টাকা, বাইলা ৪৫০-৬৫০ টাকা, বাইন ৬০০-৭০০ টাকা, চেওয়া ৫০০ টাকা, ছোট ফলি ৩০০-৪০০, তেলাপিয়া ১৭০-২২০ টাকা, মাঝারি পোয়া মাছ ৫৫০-৬৬০, চাষের কৈ ২৫০-৩০০ টাকা, ছোট চিংড়ি ৪৫০-৫৫০ টাকা, বড় চিংড়ি ৬০০-৯০০ টাকা, টেংরা ৫৫০-৭০০ টাকা, পাবদা ৬০০-৭৫০ টাকা, শিং মাছ ৫৫০-৮০০ টাকা, কাতল ২৬০-৪০০ টাকা, দেশি মাগুর ৬০০-৯০০ টাকা ও আকারভেদে ইলিশ প্রতিজোড়া ১২০০-২২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

দেশি মসুর ডাল ১০৫-১১০, ভারতীয় মসুর ডাল ৮০-৮৫ টাকা, অস্ট্রেলিয়ান মসুর ডাল ১১০-১১৫ টাকা, খেসারি ডাল ৪৫ টাকা, ছোলা ৬০ টাকা, মুগ ডাল ১১০-১১৫ টাকা, মটর ডাল ৮০ টাকা, অ্যাংকর ডাল ৪৬, বুট ডাল ৭০ টাকা, খোলা চিনি ৪৬-৪৭ টাকা, প্যাকেট চিনি ৫০ টাকা এবং আটা ৩২ টাকা দরে বিক্রি করছেন দোকানিরা।

এছাড়া প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ১০৫-১১০ টাকা ও পামলিন ৯০ টাকা।

চালের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পারিজা চাল কেজিতে ২ টাকা বেড়ে ৩৯-৪০ টাকা হচ্ছে। তবে অন্যগুলো আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে।

মোটা চাল ৩৮ টাকা, মিনিকেট ১ নং ৪৮-৫০ টাকা, মিনিকেট ২ নং ৪৩-৪৪ টাকা, বি.আর. ঊনত্রিশ ৩৮-৪০ টাকা, বি.আর.আটাশ ৪০-৪২ টাকা, জিরা নাজিরশাইল ৫৮ -৬০ টাকা, হাচকি নাজিরশাইল ৪২-৪৩ টাকা এবং পোলাও চাল মানভেদে ৮০-৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এমআই/ এএসএ/