জুলাইয়ের বেতন নিচ্ছেন তোবাকর্মীরা

0
32
toba-salary
বিজিএমইএ ভবনে জুলাইয়ের বেতন নিচ্ছেন তোবার কর্মীরা। এর পর থেকে তারা কোনো বেতন পাননি, কোথাও চাকরিও পাচ্ছেন না- ছবি খালেদুল কবির নয়ন
toba-salary
বিজিএমইএ ভবনে জুলাইয়ের বেতন নিচ্ছেন তোবাকর্মীরা- ছবি খালেদুল কবির নয়ন

দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে জুলাই মাসের বেতন নিচ্ছেন তোবা গ্রুপের ৫ কারখানার শ্রমিকরা। রোববার বেলা ২টা থেকে বিজিএমইএ কার্যালয়ে তাদের এ বেতন দেওয়া শুরু হয়।

প্রথম  ঘণ্টায় ২০০ শ্রমিককে বেতন দেওয়া হয়েছে বলে কাউন্টার কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে।

গত শনিবার সরকার মালিক ও শ্রমিক পক্ষের নেতাদের ত্রি-পক্ষীয় সভায় তোবা গ্রুপের ৫টি কারখানার শ্রমিকদের জুলাই মাসের বেতন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। বেতন প্রদানের কথা জানতে পেরে ৫টি কারখানার শ্রমিকরা বেলা দুইটার আগে থেকে বিজিএমইএ ভবনের সামনে জড়ো হতে থাকে।

এরপর লাইনে কারখানার শ্রমিকদের ভবনের মধ্যে প্রবেশ করানো হয়। এক মাসের বেতনের সঙ্গে তাদের আরও এক মাসের ওভারটাইমের টাকা প্রদান করা হচ্ছে।

বেতন প্রদানের শুরুর দিকে বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তোবার শ্রমিকদের তিন মাসের বেতন পরিশোধ করতে বিজিএমইএ নজির স্থাপন করেছে। শ্রমিকরা স্বতঃফূর্তভাবে দুই বারে তাদের বকেয়া পাওনাদি নিয়েছেন তাতে কোনো সমস্যা হয়নি বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, শ্রমিকদের বোনাসও প্রদান করা হবে তবে সেটা প্রদানে একটু সময় লাগবে বলে জানান তিনি।

কারখানাটি আবার চলবে কি না সেই প্রশ্নের জবাবে আতিকুল কলেন, জেল থেকে ছাড়া পেয়ে মালিক শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করছেন।যা মালিকের জন্য কষ্টসাধ্য বিষয় ছিল। তবে কোনো কারখানা বন্ধ হোক এটা বিজিএমইএ চায়।তবে এটা নিসক মালিকের সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি।

তোবা গ্রুপের ৫টি কারখানা তোবা ফ্যাশন, বুকশান গার্মেন্ট, তাইফ ফ্যাশন, তোবা টেক্সটাইল ও মিতা ডিজাইন।

বিজিএমইএ বলছে, বেতন ও ওভারটাইম বাবদ তোবা গ্রুপের এক হাজার ৪৯৫ জন শ্রমিককে প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ টাকা দেওয়া হবে।