ইরাকে মার্কিন হামলা শুরু

0
108
US Biman
ইরাকে মার্কিন বিমান হামলা। ফাইল ছবি

ইরাকের ইরবিল শহরে কুর্দিদের বিপক্ষে গোলা ছুড়তে থাকা ‘ইসলামিক স্টেট’ জঙ্গিদের লক্ষ্য বিমান হামলা চালিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অনুমোদন পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই হামলা পরিচালনা করে পেন্টাগন বাহিনী।

US Biman
ইরাকে মার্কিন বিমান হামলা। ফাইল ছবি

বিবিসির এক সংবাদে বলা হয়, ইরাকে কট্টর ইসলামপন্থী গোষ্ঠী আইসিসের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন বলছে, কুর্দিস্তানের নিকটবর্তী ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় শহর ইরবিলের কাছে আইসিসের ভারি অস্ত্র লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়েছে।

কুর্দি মিলিশিয়া পেশমার্গার যোদ্ধারা আইসিসের হাত থেকে ইরবিল শহর রক্ষার জন্য লড়াই করছে।

উল্লেখ্য, যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইরাকে সুন্নি বিদ্রোহীদের উপর বিমান হামলা চালাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেন্টাগন বাহিনীকে গতকাল বৃহস্পতিবার অনুমতি দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

সে সময়ে তিনি বলেছিলেন, মার্কিন সেনারা আর ইরাকে ফিরবে না। দেশটিতে কখনও সেনা পাঠাবে না তারা।

বৃহস্পতিবার ইরাক ইস্যু নিয়ে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের সঙ্গে বৈঠকে ইরাকে বিমান হামলা চালানোর সিদ্ধান্তে সম্মতি জানান ওবামা। বৈঠক শেষে ওবামা বলেন, ইরাকে মার্কিন স্বার্থ বিঘ্নিত হলে অথবা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর হামলা হলে যুক্তরাষ্ট্র বসে থাকবে না।

তিনি বলেন, বিশ্বের সব জায়গায় তখন তখন সন্ত্রাস, সংঘর্ষ বন্ধ করা যুক্তরাষ্ট্রের কাজ নয়। যুক্তরাষ্ট্র এটা করতে চায় না। কিন্তু সংঘাতের মাত্রা যখন বেড়ে যায়, যখন নিরীহ ধর্মীয় গোষ্ঠির অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়ে তখন যুক্তরাষ্ট্র চুপ করে থাকতে পারে না।

উল্লেখ, আল কায়েদা সমর্থিত সুন্নি জঙ্গীদের সংগঠন আইসিস ইরাক ও সিরিয়ার একটি বড় অংশ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। ইরাকের প্রধান তেল ক্ষেত্রগুলোর নিয়ন্ত্রণও তাদের হাতে। তারা ইতোমধ্যে দখলকৃত অঞ্চলে খেলাফত প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছে। দিন দিন দখলের পরিমাণ বাড়াচ্ছে। বর্তমানে তারা ইরাকের রাজধানী বাগদাদ থেকে মাত্র ৬০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে।

এমই/