দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তত: হামাস

0
55
gaza
গাজা সীমান্তের কাছে ইসরায়েলি ট্যাঙ্ক-ছবি রয়টার্স
gaza
গাজা সীমান্তের কাছে ইসরায়েলি ট্যাঙ্ক-ছবি রয়টার্স

ফিলিস্তিনি সীমান্তে অবরোধ তুলে নেওয়াসহ অন্যান্য দীর্ঘমেয়াদি দাবি না মানলে কোন যুদ্ধবিরতি নয়। একটা দীর্ঘ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত তারা।

শুক্রবার এমন বার্তা দিয়েছেন হামাসের সামরিক শাখার একজন মুখপাত্র।

এদিকে গাজায় চলছে ৭২ ঘণ্টার যুদ্ধবিরতি। তা শেষ হতে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি, কিন্তু এই যুদ্ধবিরতি বাড়ানোর ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনও সমঝোতা হয়নি।

কায়রোতে যুদ্ধবিরতি সম্পর্কিত আলোচনা অব্যাহত রয়েছে।

এক খবরে বিবিসি জানিয়েছে, কায়রোতে সরাসরি মুখোমুখি না হলেও ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি দু’পক্ষই মিশরীয় মধ্যস্থতাকারীদের সহায়তায় আলোচনা অব্যাহত রেখেছে।

গাজার সীমান্তে ইসরায়েলি সেনারা অবস্থান নিয়ে রয়েছে।

দীর্ঘমেয়াদি দাবি না মেনে নিলে যুদ্ধবিরতি বাড়ানোর ব্যাপারে কোন ধরনের সমঝোতায় না যেতে মিশরে থাকা ফিলিস্তিনি আলোচকদের প্রতি আহবান জানিয়েছে হামাসের সামরিক শাখা আল কাসাম ব্রিগেড। ব্রিগেডের একজন মুখপাত্র আবু উবাইদা বলেছেন তারা দীর্ঘমেয়াদি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত।

ইসরায়েলিদের দখলকারী উল্লেখ করে তিনি বলেন যেকোনো আক্রমণের শক্ত জবাব দেওয়া হবে। দাবি মেনে না নিলে দীর্ঘমেয়াদী যুদ্ধে ইসরায়েলের সকল বড় শহর অচল করে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেন তিনি।

এর আগে শনিবারই ৩ দিনের যুদ্ধবিরতি আরো বাড়ানোর প্রস্তাব দেয় ইসরায়েল। কিন্তু তা মেনে নেয়নি হামাস।

তাদের প্রধান দাবি ২০০৭ সাল থেকে গাজার ওপর যে অবরোধ রয়েছে তা তুলে নেওয়া, সীমান্ত খুলে দেওয়া, গাযার বন্দর খুলে দেওয়া ও গাজা পূনর্গঠনে আন্তর্জাতিক তহবিল গঠন করা।

ফিলিস্তিনি সূত্র জানিয়েছে, গত ৮ জুলাই থেকে শুরু হওয়া সংঘর্ষে এ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজারেরও বেশি বেসামরিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। তার মধ্যে ৪শো’র বেশি শিশু রয়েছে। এছাড়া ৫ লাখের মতো ফিলিস্তিনি ঘর ছেড়েছে।

এস রহমান/