ডিসপ্লেয়ার –মনিটর বা স্ক্রিনের বিকল্প প্রযুক্তি

0
91

OLYMPUS DIGITAL CAMERAপাশের ছবিটার দিকে তাকান, আপনি যা দেখছেন তা কোন সিনেমার দৃশ্য নয়, ফটোশপের সাহায্যে সম্পাদিত কোন কিছুও নয়বরং এটি বাতাসে ভাসমান পর্দাফুটে উঠা এক দৃশ্য। বাতাসে ভাসমান পর্দা! কথাটা বুঝতে পারছেন না তো, বুঝিয়ে বলি তবে। বায়ু, পানি এবং আলোর সমন্বয়ে ডিসপ্লেয়ার নামে এক প্রযুক্তি উদ্ভাবন করা হয়েছে এটি বাতাসে ভাসমান পর্দা তৈরি করতে সক্ষম যা মনিটর বা স্ক্রিনের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা যায়। আর হ্যা, এই প্রযুক্তির জন্য থ্রি-ডি চশমার মতো আলাদা কোন চশমা ব্যবহারেরও দরকার নেই।

ডিসপ্লেয়ারের উদ্ভাবক রাশিয়ান নকশাবিদ ম্যাক্স কামানিন। বাতাসের জলীয় বাষ্পের মধ্যে এই প্রযুক্তি ত্রিমাত্রিক পর্দা সৃষ্টি করতে সক্ষম যা হাতের স্পর্শেই সাড়া দিবে। এই প্রযুক্তিকে মনিটর অথবা স্ক্রিনের বিকল্প হিসেবে ব্যবহারের চিন্তা-ভাবনা চলছে

কামানিন ডিসপ্লেয়ারকে ভিজ্যুয়াল প্রযুক্তির পরবর্তী ধাপ বলে অভিহিত করেছেন। তার মতে, ভবিষ্যতে আরো বড় পর্দা তৈরি করা গেলে এই প্রযুক্তির সাহায্যে একই সাথে গেম খেলা, সিনেমা দেখা এবং তথ্য অনুসন্ধান করা যাবে।

কামানিন  চিকিৎসা বিজ্ঞানেও এর ব্যবহার সম্ভব বলে আশা প্রকাশ করেছেন

বর্তমানে এই ধরনের প্রযুক্তি গুগল, কোকাকোলা এবং পেপসির প্রচারণায় ব্যবহার করা হচ্ছে