ইউক্রেনের যুদ্ধবিমান রাখা ন্যাটোর ঘাঁটিতে হামলা চালাবে রাশিয়া

ইউক্রেনের এফ-১৬ যুদ্ধবিমানগুলো দেশটির ভেতরে কিংবা বাইরে যেখানেই মোতায়েন করা হোক না কেন সেগুলোতে হামলা চালানো হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে রাশিয়া। যেসব যুদ্ধবিমান রাশিয়ার সামরিক অবস্থানে হামলায় অংশ নিয়েছে সেগুলো মস্কোর বৈধ টার্গেট বলেও ঘোষণা করেছে রাশিয়া।

রাশিয়ার সংসদ দুমার প্রতিরক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান আন্দ্রে কার্তাপোলভ মস্কোয় এক বক্তব্যে এ হুঁশিয়ারি দেন।

ইউক্রেন যখন পশ্চিমা মিত্রদের কাছ থেকে আমেরিকায় তৈরি এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের প্রথম চালান গ্রহণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করলেন কার্তাপোলভ। ইউক্রেনের পাইলটরা এফ-১৬ যুদ্ধবিমান চালনার প্রশিক্ষণ শেষ করার পর কিয়েভকে ওই যুদ্ধবিমান দিতে সম্মত হলো ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো।

রুশ দুমার এই প্রতিনিধি তার দেশের অবস্থান স্পষ্ট করে বলেন, ইউক্রেনকে সরবরাহ করার জন্য বিদেশি ঘাঁটিগুলোতে যেসব বিমান মোতায়েন করা হবে সেগুলো এখনও রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবহৃত হয়নি বলে সেখানে হামলা চালাবে না রাশিয়া।

তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, কিন্তু যদি বিদেশি ঘাঁটিগুলো থেকে যুদ্ধবিমান আকাশে উড়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে হামলা চালায় তাহলে ওইসব যুদ্ধবিমানের পাশাপাশি যেসব ঘাঁটি থেকে সেগুলো উড়েছে সেগুলোতেও হামলা চালাবে রাশিয়া।

সম্প্রতি ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর কমান্ডার সের্গেই গোলুবোৎসভ বলেছিলেন, ইউক্রেন পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে যেসব এফ-১৬ যুদ্ধবিমান পেতে যাচ্ছে তার কিছু সংখ্যক বিদেশি ঘাঁটিগুলিতে মোতায়েন থাকবে। পার্সটুডে

অর্থসূচক/এএইচআর

  
    

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.