রাজশাহীতে এখন ফজলির রাজত্ব

0
84
mango
রাজশাহীর একটি আমের বাজারের ফাইল ছবি
রাজশাহীর আড়ৎগুলোতে এখন চলছে ফজলি আমের রাজত্ব। কিছুদিন আগেই শেষ হলো গোপালভোগ; আর শেষের পথে রয়েছে ল্যাংড়া ও খিরসাপাত। এরপরই আসবে আশ্বিনা।

mango
রাজশাহীর একটি আমের বাজারের ফাইল ছবি

রাজশাহী মহানগরীর স্টেশন সংলগ্ন আমের আড়ৎ ঘুরে দেখা গেছে, ফজলি আমের সরবরাহ ও বিক্রি বেড়েছে। মণ প্রতি এর বিক্রয়মূল্য ২,০০০-২,৬০০ টাকা। খিরসাপাত আমও পাওয়া যাচ্ছে; তবে এর দাম ৫-৬ হাজার টাকা। তুলনামূলক ছোট আকারের রুপালী আমের দাম ১,৫০০-২,১০০ টাকা। অন্যদিকে ল্যাংড়া আম বাজারে তেমন দেখা যাচ্ছে না।

আড়ৎদার সুমন জানান, এখন ফজলি আমের মৌসুম। তবে রুপালী আমও পাওয়া যাচ্ছে। খিরসাপাত ও ল্যাংড়া আম বাজারে খুব কম; দামও অনেক বেশি। রোজার কারণে আমের বিক্রি কিছুটা কমেছে।

দেশের বৃহত্তম আমের হাঁট পুঠিয়ার বানেশ্বরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খিরসাপাত আমের দাম প্রতিদিনই বাড়ছে। গতকাল শনিবার এটি ৫,০০০ টাকায় বিক্রি হলেও আজ রোববার এর বিক্রয়মূল্য ৫,২০০ টাকা। এখানে প্রতি মণ ফজলি আমের বিক্রয়মূল্য ১,৭০০-২৫০০ টাকা। রুপালী আমের দাম ১,৬০০-২,০০০ টাকা।

বানেশ্বর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আজিজুল বারী মুক্তার অর্থসূচককে বলেন, প্রথমদিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কারণে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল। চলছে রোজার মাস; প্রতিদিনই আম আসছে। চাহিদা অনুযায়ী সারাদেশেই ফজলি আম ফজলি আম সরবরাহ করা হচ্ছে। সরবরাহ কম হওয়ায় খিরসাপাত আমের দাম কিছুটা বাড়ছে।

বাজারদর সম্পর্কে তিনি বলেন, বাজারের তো কোনো ঠিক নাই। গত সপ্তাহে ফজলি আমের দামি ছিল মণপ্রতি ২,৪০০-৩,৫০০ টাকা। আজ তা ২,২০০ টাকায় নেমে এসেছে।

এমই/