বাংলাদেশি সীমান্তে অবৈধ পিলার ভেঙ্গেছে বিজিবি

0
47
BGB
সীমান্তে বিজিবি টহল-ফাইল ছবি
ছবি: সীমান্তে বিজিবি টহল
ছবি: সীমান্তে বিজিবি টহল

বাংলাদেশি ভূখণ্ড ভোগদখলের জন্য ভারতের দেওয়া অবৈধ সীমানা পিলার ভেঙে দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ৩৭ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা।

গত ১১ জুলাই দুপুরে কংক্রিটের ওই পিলারটি ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সঙ্গে আলোচনা করে ভেঙে ফেলা হয় বলে জানানো হয়েছে।

বিজিবি-৩৭ ব্যাটালিয়ন সূত্রে জানা যায়, গত ১০ জুলাই রাত ১১টার দিকে রাজশাহীর পার্শ্ববর্তী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বকচর পোস্টের বিজিবির একটি টহল দল প্রথম ওই সীমানা পিলারটি দেখতে পায়। সীমান্তের শূন্য লাইন থেকে আনুমানিক ১০০ গজ বাংলাদেশের ভেতরে কে বা কারা কংক্রিটের ওই সীমানা পিলার নির্মাণ করে।

পিলারটি দেখার পর বকচর পোস্ট বিজিবি কমান্ডার ভারতের রামনগরের বিএসএফ কমান্ডারকে বিষয়টি অবহিত করেন এবং এর কঠোর প্রতিবাদ জানান।

পরে ১১ জুলাই বিজিবি-৩৭ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ওই পিলারটির ছবি ক্যামেরায় ধারণ করেন। ওই দিনই ভারতের ৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমান্ডার শ্রী রিতেশের সঙ্গে আলোচনায় বসে বিজিবি। পরে রিতেশের উপস্থিতিতেই কংক্রিটের পিলারটি ভেঙ্গে ফেলা হয়।

বিজিবি-৩৭ ব্যাটালিয়নের অপস্ অফিসার এইচ কামরুল হাসান বলেন, কিছু সংখ্যক ভারতীয় নাগরিক ওই জমি বেআইনিভাবে ভোগদখল করার জন্য পিলারটি গোপনে নির্মাণ করেছিল।

এর আগে বকচর পোস্টের কাছে সুতারমুখ নামক স্থান থেকে ৩ জন ভারতীয় বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ১৫ শতাংশ জমির তিল কেটে নিয়ে চলে যায়। ওই জমির মালিক আবদুস সালাস বিজিবির কাছে অভিযোগ জানালে তারা বিএসএফের সঙ্গে পতাকা বৈঠক করেন এবং ঘটনার জোর প্রতিবাদ জানান।

তিনি বলেন, বিএসএফ-৪ কমান্ডার ওই জমির তিল ফেরত পাইয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন। বকচর এলাকায় মাঝে মধ্যেই ভারতীয় নাগরিকরা বাংলাদেশে ঢুকে মানুষের জমির ফসল কেটে নিয়ে যায়। এগুলো রোধে বিএসএফ’র সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে জানান তিনি।

এএসএ/