‘আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য তৈরির চেষ্টা হলে কঠোর হস্তে দমন’

0
40
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে দেশে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

তিনি বলেন, কোন ঈদের পর আন্দোলন করবেন, তা তারা নির্দিষ্ট করেন নি। অতীতে ও তারা এ ধরনের আন্দোলনের হুমকি অনেকবার দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, তারা তাদের হতাশাগ্রস্ত নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা করার জন্যই আন্দোলনের করার কথা বলছেন। আন্দোলন করবেন- আবার বোরকা ও হেলমেট পরে আদালতে যাবেন তা হতে পারে না।

বাসস জানায়, শনিবার সকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বীর উত্তম খাজা নিজামুদ্দিন মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উদ্যোগে ‘চলমান রাজনীতি: জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের সফলতা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা দিচ্ছিলেন।

সংগঠনের উপদেষ্টা এবং আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে সভায় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কৃষক লীগের সহ-সভাপতি এম এ করিম, বেসরকারী শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্টের মহাসচিব অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু, সংগঠনের সভাপতি মো. জিন্নত আলী খান, সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলুল হক ও আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক সোহেলী পারভীন মণি প্রমুখ।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দেশে এখনও বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে। সেজন্য ‘রাজনীতির বিষ’ হিসেবে পরিচিত দেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির মূলোৎপাটন করতে হবে।

বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান বলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মায়ানমারের সাথে সমুদ্রসীমা জয় লাভ বর্তমান সরকারের সবচেয়ে বড় কূটনৈতিক সফলতা। কেননা কোন প্রকার যুদ্ধ-বিগ্রহ ছাড়া আন্তর্র্জাতিক সালিশী আদালতের মাধ্যমে এ ধরনের জয়লাভ কূটনৈতিক দক্ষতা ছাড়া সম্ভব নয়।