আশুগঞ্জে পঁচে-গলে নষ্ট হওয়া অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার

Brahmanbariaঅযথা হয়রানির ভয়ে এলাকার লোকজন পুলিশকে লাশ পড়ে থাকার খবরটি দীর্ঘ ৮-১০দিনেও দেয়নি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবর পুলিশকে দিতে সাহস করেন না সাধারণ মানুষ। বিষয়টি আরেকবার প্রমাণ করলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে পঁচে গলে নষ্ট হওয়া একটি অজ্ঞাত লাশ। লাশটি আগে উদ্ধার করা গেলে হয়তো তার পরিচয় জানা সম্ভব হতো। এই ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানায়  অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৮-১০দিন আগে উজান থেকে মেঘনা নদীতে ভেসে আসে অজ্ঞাতনামা এক কিশোরের লাশ। আশুগঞ্জের চরচারতলা ইউনিয়নের জিটিসিএলের পাশে মেঘনা নদীর তীরর্বতী একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির কাছে লাশটি পড়ে থাকে। একাধিক নারী-পুরুষ দেখলেও পড়ে থেকে লাশটি পচেঁ গলে নষ্ট হতে থাকে। স্থানীয়দের ধারণা সন্ত্রাসীরা এসব মানুষকে খুন করে কৌশলে নদীতে বা নির্জন স্থানে ফেলে দেয়। এলাকাবাসী লাস দেখলেও ঝামেলা হতে পারে এই ভয়ে পুলিশকে খবর দেয়নি। এভাবেই কেটে যায় ৮-১০ দিন। অবশেষে গতকাল শুক্রবার বিকেল তিনটায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

আশুগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) গোলাম ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এসইউ