ভারতে অন্ধদের জন্য এবার নোটে ব্রেল

0
66
blind man
দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী (প্রতিকী)
blind man
দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী (প্রতিকী)

অন্ধরা হাতে টাকা নিয়ে সব সময় বুঝতে পারেন না, এটা কত টাকার নোট। দোকান, বাসট্রাম, ব্যাঙ্ক সর্বত্র অন্যের মুখাপেক্ষী হতে হয় তাদের। তাই এসব বিষয় বিবেচনা করে ভারতের নরেন্দ্র মোদি সরকার বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় বাজেটে নোটে ব্রেল হরফে টাকার পরিমাণ লিখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন। এতে উচ্ছ্বসিত দৃষ্টিহীন মানুষজন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।
তবে একই সমস্যা পয়সার ক্ষেত্রেও হয় বলে জানিয়েছেন তারা। পয়সার আকার এখন বদলে যাওয়ায় কোনটা এক টাকার কয়েন, কোনটা দু’টাকার বা আধুলি, তা বেশির ভাগ সময় ছুঁয়ে তাঁরা বুঝতে পারেন না। পয়সাতেও ব্রেল হরফে পরিমাণ লিখে দিলে একটা বড় সমস্যার সমাধান হত বলে মনে করছেন তাঁরা।
ব্লাইন্ড পার্সনস অ্যাসোসিয়েশন অব ওয়েস্ট বেঙ্গল-এর অন্যতম সদস্য সুকান্তি মজুমদার বলেন,‌’ বাজারে গিয়ে অনেক সময় কত টাকার নোট দিচ্ছি বুঝতে পারি না। তখন দোকানদারের উপর নির্ভর করতে হয়। ব্যাঙ্কে কাজের সময় বলা হয়, কাউকে সাথে নিয়ে আসতে হয়। সরকার আমাদের এই অসুবিধা নিয়ে ভেবেছে বলে ধন্যবাদ।পয়সার ক্ষেত্রে এই নিয়ম করা দরকার।‘

বাজেটে নতুন ১৫টি ব্রেল প্রেস তৈরি এবং পুরনো ১০টি ব্রেল প্রেসের আধুনিকীকরণের কথাও বলা হয়েছে।
প্রতিবন্ধীদের জন্য বাজেটে বিভিন্ন প্রকল্প ঘোষণা করতে গিয়ে ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, প্রতিবন্ধীরা যাতে সমাজে সম্মানের সঙ্গে বাঁচতে পারে, তেমন পরিবেশ তৈরিই সরকারের লক্ষ্য। প্রতিবন্ধীদের বিভিন্ন সহায়ক যন্ত্র ও মেডিকেল সামগ্রী কেনার প্রকল্পে বরাদ্দ বাড়ানোর কথাও ঘোষণা করা হয়।

বাজেটে প্রতিবন্ধীদের জন্য একটি স্পোর্টস সেন্টার ও মানসিক রোগীদের পুনর্বাসন কেন্দ্র তৈরির কথাও বলা হয়েছে।