রমজানে লেনদেন খরা পুঁজিবাজারে

0
63
লেনদেন কমেছে
DSE_Suchak
ডিএসই নিম্নমুখী সূচক

রমজান মাসে দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেনে খরা লেগেছে। রমজান মাসের শুরু থেকেই দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন কমতে শুরু করেছে। ঘুরে ফিরে লেনদেন ২০০ কোটি টাকার নিচে অথবা ওপরে হচ্ছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে বুধবার এরই ধারাবাহিকতায় লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৫৭ কোটি টাকা।

বিশ্লেষকদের মতে, পুঁজিবাজারে এখনও অস্থিরতা কাটেনি। তাছাড়া বিনিযোগকারীদের ঝোঁক সব সময় স্পেশাল কিছু শেয়ারের প্রতি থাকে। যে পরিমাণ নতুন বিনিয়োগ দরকার সেই পরিমাণ নতুন বিনিয়োগ হচ্ছে না পুঁজিবাজারে এছাড়া রমজানে পুঁজিবাজারের লেনদেনের সময় এক ঘণ্টা কমেছে। সবকিছু মিলিয়ে লেনদেনে খুব খারাপ অবস্থা চলছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সূচকের ইতিবাচকতায় লেনদেন শুরু হলেও দিন শেষে তা টিকে থাকে নি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই)। দিন শেষে ডিএসই প্রধান সূচক কমেছে ৫ পয়েন্ট বা দশমিক ১২ শতাংশ। এই সূচকের নেমে আসে ৪ হাজার ৩৭১ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ২ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১ হাজার ৬০৩ পয়েন্টে।

এদিকে শরীয়া সূচক সামান্য পরিমাণে বেড়েছে এই দিন। দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা দশমিক ০৯ শতাংশ বেড়ে ডিএসইএস সূচকের অবস্থান দাঁড়িয়েছে ৯৯৫ পয়েন্টে।

বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৪২ শতাংশ বা ১২৩টি কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে। এদিকে দর কমেছে ১১৬টি কোম্পানির শেয়ারের। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩টির দর। মোট লেনদেন হয়েছে ২৯২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। মোট শেয়ার লেনদেনের পরিমান দাঁড়ায় ১৫৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকার।

ডিএসইতে এই দিন লেনদেনের শীর্ষ দশ কোম্পানির তালিকায় রয়েছে- গ্রামীণফোন, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, বেক্সিমকো, ফার কেমিক্যাল, অ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স লিমিটেড, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ, স্কয়ার ফার্মা, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট এবং এনভয় টেক্সটাইল।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসই সার্বিক সূচক দিন শেষে ৪ পয়েন্ট কমে যায়। এই সূচকের অবস্থান দাঁড়ায় ১৩ হাজার ৪৬৮ পয়েন্টে। সিএসইতে এই দিন মোট লেনদেন হয়েছে ২০১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৬টির, কমেছে ১০১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির।

অর্থসূচক/এমআরবি/