চট্টগ্রাম রুটে রেল চলাচল শুরু

0
40
Oil Train
ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত (ফাইল ছবি)

চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ শুরু হয়েছে। সাত ঘণ্টার বেশি বন্ধ থাকার পর বুধবার দুপুর ১টার দিকে সুবর্ণ এক্সপ্রেস চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম স্টেশন ত্যাগ করেছে বলে জানান স্টেশন ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ।

Oil Train
ফৌজদারহাট স্টেশনের প্রবেশপথে তেলবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন ও বগি লাইনচ্যুত হয়েছে।ফৌজদারহাট স্টেশনের প্রবেশপথে এটি লাইনচ্যুত হয়। তেলবাহী ৫টি বগির মধ্যে দুটি বগি অন্য দিকের লাইনে পড়ে। সকাল ৯টার পর এর উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে।

এর আগে বুধবার ভোরে তেলবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন ও বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।

দীর্ঘ সময় লাইন বন্ধ থাকায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে চট্টগ্রামের দুটি ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। অপর কয়েকটি ট্রেনের যাত্রা বিলম্বিত করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ জানান, ভোরে তেলবাহী একটি ট্রেন চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ফৌজদারহাট স্টেশনে যাওয়ার সময় চট্টগ্রাম ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজ এলাকায় এর ইঞ্জিন ও পাঁচটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এটি উদ্ধার করতে ৬ ঘণ্টার বেশি সময় লাগে। দীর্ঘ সময় পর্যন্ত অনেকগুলো ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে আটকে ছিল।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল সূত্রে জানা যায়, সিগন্যাল অমান্য করে স্টেশনে প্রবেশের চেষ্টা করায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এর তদন্তে দুটি কমিটি করা হয়েছে। ট্রেনটির দুই চালক উত্তম কুমার ভট্টাচার্য ও তার সহযোগীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

ফৌজদারহাট স্টেশনমাস্টার জানান, দুর্ঘটনার পর থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত পাঁচটি ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশনে অপেক্ষরত ছিল। এর মধ্যে রয়েছে ঢাকাগামী সুবর্ণ এক্সপ্রেস, মহানগর প্রভাতী, চট্টলা এক্সপ্রেস, চাঁদপুরগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস ও সিলেটগামী পাহাড়িকা এক্সপ্রেস। অপরদিকে চট্টগ্রামগামী চট্টগ্রাম মেইল, উদয়ন, মহানগর গোধূলী ও তূর্ণা নিশীথা ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে আটকে ছিল।

এমই/