ডিএসইতে লেনদেন ২০০ কোটি টাকার নিচে

0
50
dse_2
সূচক-নিম্নমুখী

 

dse_2
ডিএসই-সূচক-নিম্নমুখী

দিনে দিনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের পরিমাণ কমে আসছে। গত কয়েক কার্যদিবস ধরেই কমছে ডিএসইর লেনদেন। আজ সোমবার লেনদেন কমে ২০০ কোটি টাকার নিচে নেমে এসেছে। এই দিন লেনদেন নেমেছে ১৯১ কোটি ৫০ লাখ টাকায়।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সোমবার সূচকেরও বড় পতন ঘটে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ৩৪ পয়েন্ট কমেছে। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক ১১২ পয়েন্ট কমেছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে আগের দিনের তুলনায় ২৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকার লেনদেন কমেছে। মোট লেনদেনে অংশ নেওয়া ৫৯ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে। মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ২৯৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮২টির, কমেছে ১৭৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির।

ডিএসইএক্স বা প্রধান সূচক দশমিক ৭৭ শতাংশ বা ৩৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৩৭৬ পয়েন্টে। আর ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৭ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৯৯২ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএস৩০ সূচক দশমিক ৫৩ শতাংশ বা ৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৬০৩ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ দশ কোম্পানি হচ্ছে- বেক্সিমকো, অ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মা, জেনারেশন নেক্সট, পেনিনসুলা চিটাগং, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ এবং ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে(সিএসই) সিএসই সার্বিক সূচক ১১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৩ হাজার ৪৬৩ পয়েন্টে। মোট লেনদেন হয়েছে ২০২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩৮টির, কমেছে ১৩৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির।

অর্থসূচক/এমআরবি/